রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০১:৫৮ অপরাহ্ন

সেপ্টেম্বরেই ভারত সফর করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন

Coder Boss
  • Update Time : বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০২৩
  • ৯৫ Time View

এ বছরটি হতে চলেছে ভারত-যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের একটি ‘বিগ ইয়ার’। যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু এ কথা বলেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় সেপ্টেম্বরে নয়া দিল্লিতে জি২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে আসছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সেখানে বৈশ্বিক বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে। তবে আঞ্চলিক ও ভারতের নিকট প্রতিবেশী দেশগুলোর বিভিন্ন সংকট নিয়ে তাদের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হতে পারে। এমন আলোচনা রাজনৈতিক বোদ্ধা মহলে। এই সম্মেলন হতে যাচ্ছে ৯ থেকে ১০ই সেপ্টেম্বর নয়া দিল্লিতে। জি২০-এর অন্য অংশীদারদের সঙ্গে এ সময় বৈশ্বিক বিভিন্ন ইস্যু মোকাবিলায় যৌথ প্রচেষ্টা নিয়ে তিনি আলোচনা করবেন। ভারতের সরকারি বার্তা সংস্থা পিটিআই সহ প্রায় সব মিডিয়া এ নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে।
মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজ থেকে বলা হয়েছে, আলোচ্য ইস্যুর মধ্যে আছে পরিবেশবান্ধব জ্বালানি, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলা, ইউক্রেন যুদ্ধের অর্থনৈতিক ও সামাজিক প্রভাব প্রশমিত করা এবং দারিদ্র্য মোকাবিলায় বিশ্বব্যাংক সহ বহুপক্ষীয় উন্নয়ন বিষয়ক ব্যাংকের সক্ষমতা বৃদ্ধি করা। নয়া দিল্লিতে এই সফরের সময় জি২০তে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বের বিষয়ে মন্তব্য করবেন বাইডেন।

 

অর্থনৈতিক সহযোগিতার প্রধান ফোরাম হিসেবে জি২০তে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করবেন। ২০২২ সালের ১লা ডিসেম্বর থেকে এ বছর ৩০শে নভেম্বর পর্যন্ত এক বছরের জন্য জি২০-এর প্রেসিডেন্সিতে আছে ভারত। এ সময়ে দেশজুড়ে বেশ কিছু মিটিং আয়োজন করেছে তারা।
এ বছর জুনে যুক্তরাষ্ট্র সফর করেন নরেন্দ্র মোদি। সেসময় বাইডেন বলেছেন, নয়া দিল্লিতে সেপ্টেম্বরে জি২০র সামিটের জন্য অপেক্ষায় আছেন তিনি। ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ বিবৃতিতে তখন বলা হয়, জি২০র প্রেসিডেন্সি হিসেবে নয়া দিল্লির নেতৃত্বের প্রশংসা করেছেন বাইডেন। এ সময়ে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতাকে শক্তিশালী করা হয়েছে বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবিলায়। এর মধ্যে আছে জলবায়ু পরিবর্তন, মহামারি, অস্থিতিশীলতা ও যুদ্ধ। পাশাপাশি জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ত্বরিত কাজ করা হয়েছে। শক্তিশালী, টেকসই, ভারসাম্যপূর্ণ এবং সবার প্রবৃদ্ধি অর্জনের ভিত্তি রচনা করা হয়েছে।
জি২০ সামিটে জো বাইডেনের যোগ দেয়ার বিষয় এর আগে উল্লেখ করেছেন দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু। তিনি বলেছেন, এটা হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের সম্পর্কের একটি ‘বিগ ইয়ার’। ভারত আয়োজন করছে জি২০ এবং যুক্তরাষ্ট্র আয়োজন করছে অ্যাপেক, জাপান আয়োজন করছে জি৭। কোয়াডে আমাদের আছে প্রচুর সদস্য। তারা নেতৃত্বের ভূমিকা নিয়েছে। তারা আমাদের দেশগুলোকে কাছাকাছি নিয়ে আসার সুযোগ দিয়েছে।
এর আগে জি২০ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে যোগ দিতে ভারত সফর করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। অর্থমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেন এবং বাণিজ্যমন্ত্রী গিনা রেইমন্ডো ভারত সফর করেছেন। নয়া দিল্লিতে ইন্ডিয়া-ইউএস ফোরামে যোগ দিয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
©ziacyberforce.com
themesba-lates1749691102