হামলা করল যুবলীগ আর ছাত্রলীগ আর গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হল বিএনপি কর্মীদের

0

জিসাফো ডেস্কঃ বরিশালের গৌরনদীর বিএনপির আহ্বায়ক আবুল হোসেন মিয়ার বাড়িতে শনিবার (১২ নভেম্বর) হামলা চালায় যুব ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মী। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। তবে ওই মামলায় যুব ও ছাত্রলীগের কোনও কর্মীকে আটক না করে বিএনপির ৮ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে।

গৌরনদী থানার এসআই মো. ফকরুদ্দিনের করা মামলার রবিবার বরিশালের বিচারিক হাকিম মো. এনায়েত উল্ল্যাহ তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

 মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, গৌরনদী উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবুল হোসেনের বাড়িতে শনিবার দুপুরে সরকারবিরোধী সভা চলাকালে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৮ জনকে আটক করে। উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবুল হোসেনের টরকী বন্দরের বাসার সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়।

মামলায় বাদী এসআই ফকরুদ্দিন বলেন, আসামিরা সবাই বিএনপির ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সমর্থক। তারা সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে গোপন বৈঠক করছিল। গোপনে খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

এ বিষয়ে আবুল হোসেন জানান, মাহিলাড়া ইউনিয়ন বিএনপি কমিটি গঠন নিয়ে তার বাসায় সভা হচ্ছিল। দুপুরে যুব ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার বাসায় হামলা চালায়। হামলাকারীদের মারধরে ৮ জনকে আহত হয়। তারা বাসায় ভাঙচুরও করে। এসময় জিজ্ঞাসাবাদের নামে ৮ জনকে আটক করে। পরে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের জেলে পাঠানো হয়েছে।