স্বাধীনতা পদক সরানোর প্রতিবাদে শনিবার সারাদেশে বিক্ষোভ সমাবেশ বিএনপির

0

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতা পদক সরানোর প্রতিবাদে আগামী শনিবার দেশের সব জেলা সদর ও মহানগরে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ সমাবেশ করবে বিএনপি। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

জিয়াউর রহমানের পদক সরানোকে বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের নিকৃষ্টতম সিদ্ধান্ত আখ্যা দিয়ে ফখরুল বলেন, এই সিদ্ধান্ত দেশের রাজনীতিতে বিভক্তি আরও বাড়াবে। রাজনীতিকে আরও সংকটময় করে তুলবে। তিনি বলেন, সরকারের এই সিদ্ধান্ত প্রতিহিংসাপরায়ণ, ঔদ্ধত্যপূর্ণ ও গণবিচ্ছিন্ন।

মুক্তিযুদ্ধে জিয়ার অবদান উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, যারা জিয়াউর রহমানের পদক কেড়ে নিচ্ছে, তারা মূলত স্বাধীনতাকে অস্বীকার করছে। মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমানের অবদান অস্বীকার করার কোনো সুযোগ নেই। এই সিদ্ধান্ত রাজনৈতিক প্রতিহিংসা প্রসূত।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আামির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু ও এ জেড এম জাহিদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রমুখ।

গতকাল বুধবার জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতা পদক জাতীয় জাদুঘর থেকে সরিয়ে ফেলা হয়। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের একজন কর্মকর্তা শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরে গিয়ে জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতা পদকটি নিয়ে যান।

২০০৩ সালে তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জিয়াউর রহমানকে যৌথভাবে মরণোত্তর স্বাধীনতা পুরস্কার দেওয়া হয়।

বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে জিয়াউর রহমানকে পদক দেওয়ায় তখন কঠোর সমালোচনা করেছিল আওয়ামী লীগ। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার সম্প্রতি জিয়াউর রহমানকে দেওয়া ওই পদক বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়।