সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতি দিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গড়িমসি

0

জিসাফো ডেস্কঃ মহান মে দিবসে রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শ্রমিক সমাবেশের অনুমতি পায়নি বিএনপি। ফলে কাল শ্রমিক দিবসে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে শ্রমিক র‌্যালি করবে বিএনপি। আজ দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতি দিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গড়িমসি করছে।

তিনি বলেন, ১ মে আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চাইলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দেয়নি। পরে শ্রমিক দলের নেতারা ২ এবং ৩ মে অনুমতি চাইলে সেটি দিতেও গড়িমসি করছে তারা।

রিজভী বলেন, এই সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ক্ষমতাসীনরা নিজস্ব সম্পত্তি মনে করে। তাদের যখন খুশি তখন তারা অনুষ্ঠান করে। আবার এমন কিছু দলকে অনুমতি দেয় যাদের সমাবেশে বাড়ির উঠান ভরে না। কারণ তারা সরকারের অনুসারী। আর বিএনপির মতো দলকে তারা অনুমতি দেয় না।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ১ মে সমাবেশের অনুমতির জন্য শ্রমিক দলের সঙ্গে বিএনপির হাইকমান্ড ডেলিগেশন সাবেক চিফ হুইপ জয়নুল আবদীন ফারুক, সাবেক এমপি আবুল খায়ের ভূঁইয়া, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী তিনদিন ধরে দৌড়াচ্ছেন। একবার কমিশনার অফিস বলে ডিসি অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে; ডিসি অফিস বলে আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা না বললে কিছু করতে পারব না।

তিনি বলেন, আজকেও তারা সকাল থেকে কমিশনের অফিসে ছিলেন। কিন্তু কমিশনার অফিস থেকে বলা হয়েছে ডিসি রমনার সঙ্গে যোগাযোগ করতে। রমনার ডিসি বলেছেন, আমরা ওপর থেকে অনুমতি না পেলে কিছু বলতে পারব না। রিজভী অভিযোগ করেন, বিএনপির সমাবেশের অনুমতি দিতে গড়িমসি করছে। এক ধরনের টালবাহানার মধ্যে রেখেছে। গণতন্ত্রের উৎকৃষ্ট নমুনা হচ্ছে পুলিশি অনুমতির ওপরে বাংলাদেশের গণতন্ত্র নির্ভর করছে। এ গণতন্ত্র বিশ্বে বিরল। বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুলিশি গণতন্ত্র।

পুলিশ ৫ তারিখের পরে অনুমতি দেবে সাংবাদিকদের কাছ থেকে এমন তথ্য জানার পর রিজভী বলেন, এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ দিবস। সেদিনের বাইরে পাঁচ/দশ দিন পরে করলে কি হয়? এটি তাদের টালবাহানা আর গড়িমসির একটি অংশ।

এদিকে মহান মে দিবসে সমাবেশের অনুমতি না পাওয়ায় র‌্যালি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল। আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস উপলক্ষে কাল সোমবার সকাল ১০টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে র‌্যালিটি শুরু হবে।

শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম খান নাসিম সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ২ এপ্রিল থেকে চার দফায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আমরা শ্রমিক সমাবেশের জন্য অনুমতি চাইলেও পুলিশ প্রশাসন তা দেয়নি। এসময় শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন সমাবেশের অনুমতি না দেয়ায় সরকারের কঠোর সমালোচনা করে জানান, সোমবার সকাল ১০টায় শ্রমিক র‌্যালিটি নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে শেষ হবে।

সংবাদ সম্মেলনে  ও সংগঠনটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, শ্রমিক নেতা মতিয়ার রহমান ফরাজী, মো. আবুল কালাম আাজদ, মো. মেহেদী আলী খান, মোস্তাফিজুল করিম মজুমদার, ফজলুল হক মোল্লা, মিজানুর রহমান চৌধুরী, মঞ্জুরুল ইসলাম প্রমুখ।