সার্চ কমিটি নিয়ে আজ আনুষ্ঠানিক ভাবে অবস্থান তুলে ধরবে বিএনপি

0

নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনে সার্চ কমিটির ৬ সদস্যের নাম ঘোষণার পর থেকেই বিএনপি নেতারা নানা বক্তব্য দিচ্ছেন। ব্যক্তিগত প্রতিক্রিয়া দেয়ার পর এবার আনুষ্ঠানিকভাবে এ বিষয়ে বক্তব্য দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি।

আজ সকাল সাড়ে ১০টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সার্চ কমিটি নিয়ে দলের অবস্থান তুলে ধরবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এ দিকে সার্চ কমিটির সদস্যদের নিয়ে আপত্তি করলেও গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি না হলে আন্দোলনে নামার যে হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছিল দলটি, সে রকম কিছু ঘোষণা এই মুহূর্তে দেবে না তারা।

দলীয় সূত্র বলছে, আপাতত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে কমিশনের কয়েকজন সদস্যের ব্যাপারে বিরোধিতার বিস্তারিত তুলে ধরা হবে।

ঘোষিত সার্চ কমিটি বাতিল করে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে নতুন করে গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ সার্চ কমিটি গঠনেরও দাবি করা হতে পারে সংবাদ সম্মেলনে।

দলীয় সূত্র জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় সার্চ কমিটি চূড়ান্ত হওয়ার পর রাতে চেয়ারপারসনের সঙ্গে বৈঠক করেন বিএনপির বেশ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ নেতা। সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানানোর সিদ্ধান্ত হয় সেখানেই।

অনানুষ্ঠানিক ওই বৈঠকে উপস্থিত নেতাদের মধ্যে ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘একদিন অপেক্ষা করুন, সব জানতে পারবেন।’

সার্চ কমিটির ব্যাপারে আমীর খসরু বলেন, ‘যারা এই কমিটিতে আছেন, তাদের চেনেন সবাই। আমরা যে আশঙ্কার কথা বলেছিলাম, শেষমেশ তা-ই হলো। সরকার রাষ্ট্রপতিকে দিয়ে দলীয় কমিটি করেছে।’

বিএনপি কোনো কর্মসূচি দেবে কি-না এমন প্রশ্নে বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, ‘অনেক বিষয় নিয়ে আলাপ-আলোচনা হচ্ছে, কিছু হলে জানবেন।’

বুধবার গঠিত নতুন সার্চ কমিটিতে প্রধান করা হয়েছে আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে। হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান হলেন সদস্যসচিব। আর সদস্য হিসেবে আছেন মহাহিসাব নিরীক্ষক মাসুদ আলম, সরকারি কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য শিরীণ আক্তার।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমাদের দাবি ছিল, দলনিরপেক্ষ ও সবদলের কাছে গ্রহণযোগ্য একটি নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটি। কিন্তু আমরা যে আশঙ্কা করেছিলাম, তাই তো হলো।’