সরকার সব সময়ই অন্যের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে তাদের ব্যর্থতা ঢাকতে চায় – মির্জা ফখরুল

0

জিসাফো নিউজ ডেস্কঃ বিএনপি-জামায়াত ইতালীয় নাগরিককে হত্যা করেছে সরকারের পক্ষ থেকে করা এমন অভিযোগের সমালোচনা করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেছেন, সরকার সব সময়ই অন্যের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে তাদের ব্যর্থতা ঢাকতে চায়।বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

 মির্জা ফখরুল বলেন, সরকারের ব্যর্থতা ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার কারণেই ইতালির নাগরিক তাবেলা সিজার খুন হয়েছেন।তিনি বলেন, দেশে সুশাসনের অভাব, গণতন্ত্রের অভাব। গণতান্ত্রিক পথ খোলা না থাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। প্রতিদিনই দেশে খুন-গুম-অপরহণ হচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে এখন বিদেশি নাগরিকও খুন হয়েছে।
বিএনপি-জামায়াত ইতালির নাগরিককে হত্যা করেছে, সরকারের এমন অভিযোগের সমালোচনা করেন মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, সরকার সব সময়ই অন্যের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে তাদের ব্যর্থতা ঢাকতে চায়। সরকারকে আহবান জানাবো যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থির উন্নতির জন্য পদক্ষেপ নেয়।বিএনপি ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, জনগণের আন্দোলন সফল হবেই। দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবেই। এদেশের মানুষ গণতন্ত্রহীনতার শৃঙ্খলে বেশি দিন আবদ্ধ থাকতে অভ্যস্ত নয়।   আট মাস পর রাজধানীর নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বুধবার সকাল ১০টার দিকে তিনি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এসে পৌঁছান। এ সময় দলের কয়েকজন নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন, এর আগে সিঙ্গাপুর ও যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসা শেষে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে গত ২১ সেপ্টেম্বর রাতে দেশে ফেরেন মির্জা ফখরুল।
 মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর টানা ৬ মাস ১০ দিন কারাবন্দী থেকে ১৫ জুলাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের প্রিজন সেল থেকে জামিনে মুক্তি পান। মুক্তির পর রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি।গত ২৬ জুলাই চিকিৎসার জন্য মির্জা ফখরুল স্ত্রী রাহাত আরা বেগমকে সঙ্গে নিয়ে সিঙ্গাপুরে যান। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ১১ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রে যান বিএনপির এই নেতা।