সরকার বিচার ব্যবস্থাকে সম্পূর্ণ কব্জা করেছে: মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

0

জিসাফো ডেস্কঃবিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আওয়ামী লীগ বিচার ব্যবস্থাকে সম্পূর্ণ কব্জা করে ফেলেছে। অথচ তাদের নির্বাচনি মেনিফেস্টোতে ছিল বিচার ব্যবস্থা স্বাধীন করা হবে। আর এই বিচার ব্যবস্থার স্বাধীনতার জন্য আমরা অনেক লড়াই করেছি।’

বুধবার ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপি’র কাউন্সিলের প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব আরও বলেন, ‘প্রধান বিচারপতিই বলেছেন- তারা ইতিমধ্যেই নিম্ন আদালত করায়ত্ত করেছেন, এখন সুপ্রিম কোর্ট হাতিয়ে নেওয়ার অপেক্ষায় আছেন।’

তিনি বলেন, ‘সরকার নির্বাহী কোর্ট, জজ কোর্টসহ নিচের সব আদালত নিজেদের পকেটে নিয়ে নিয়েছেন।’

ফখরুল বলেন, ‘রাজনৈতিকভাবে এত কঠিন সময় বাংলাদেশে আর আসেনি। আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রের মুখোশ পড়ে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে চায়। তারা তাদের অবৈধ ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে বাকশালের মতো ব্যবস্থা করতে চায়। আজ শুধু এটাই পার্থক্য, গণতন্ত্রের মুখোশ পরে আজ তারা দেশ শাসন করছে।’ তিনি বলেন, ‘বিরোধীদলের নেত্রীর অফিস তল্লাশির ঘটনা, যেখানে প্রাপ্তি শূন্য সেটার বিরুদ্ধে আমরা আন্দোলন করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপিকে সভা করতে না দেওয়া সরকারের স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবের পরিচয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য এই সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে, যার কোনও বিকল্প নাই।’

কাউন্সিল উদ্বোধন করেন যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খাঁন সোহেল। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলু, সহ-সাংগঠনিক সামসুজ্জামান ও সৈয়দ জাহাঙ্গীর, কেন্দ্রীয় সদস্য জেড মর্তুজা তুলা ও মির্জা ফয়সাল আমীন।

জেলা বিএনপি’র প্রায় ১১ শ কাউন্সিলর কাউন্সিলে অংশ নিচ্ছেন। তাদের ভোটেই দ্বিতীয় অধিবেশনে নতুন জেলা কমিটি নির্বাচিত হবে।