সরকারের মধ্যে কোন্দল শুরু হয়েছে: মির্জা ফখরুল

0
জিসাফো ডেস্কঃ অনৈতিকভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্য সরকারের মধ্যে কোন্দল শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা মহানগর বিএনপির আহবায়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য  মির্জা আব্বাস ও এম কে আনোয়ারসহ সকল রাজবন্দীর মুক্তির দাবিতে সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর বিএনপি। এতে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক  কাজী আবুল বাসার ও পরিচালনা করেন, খিলগাঁও থানা বিএনপির সভাপতি ইউনুছ মৃধা এবং বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বক্তব্য অনুযায়ী বর্তমান সরকারের কোনো বৈধতা নেই। সরকারের ভেতরে নিজেদের মধ্যে কোন্দল শুরু হয়ে গেছে। তারা নিজেরা নিজেদের দুর্নীতিকে বৈধতা দিচ্ছে। প্রতিদিন পদ্ম সেতুর ব্যয় বাড়ছে। একইসঙ্গে মৌচাক ফ্লাই ওভারে ১২০০ কোটি টাকা ব্যয় বাড়িয়েছে। এসব বাড়ানো অর্থ সরকার লুটপাট করছে। সকল দুর্নীতির বৈধতা দিচ্ছে সরকার।

ঢাকা মহানগর নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়ে তিনি বলেন, জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। নগরীর নেতাকর্মী যারা গুম-খুন ও মামলার শিকার হয়েছেন তাদেও একটি তালিতা প্রস্তুত করতে হবে। সবার তালিকা মানুষকে জানাতে হবে। এখনও প্রায় আমাদের দলের ৬ হাজার নেতাকর্মী কারাগারে রয়েছেন।

দেশে আইনের শাসন নেই বলে উল্লেখ্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, আমাদের নেত্রী সংলাপের আহবান জানিয়েছেন কিন্তু তারা আলোচনা করতে চায় না। তারা জানে সংলাপের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তারা জয়লাভ করতে পারবে না।

যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবুল খায়ের ভূইয়া, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ সভাপতি মুনির হোসেন, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আব্দুল মালেক, ছাত্রদলের সহ সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট প্রমুখ বক্তৃতা করেন।