শেনজেন এলাকায় ভিসামুক্ত প্রবেশের অধিকার চায় তুরস্ক

0

জিসাফো  ডেস্কঃ তুরস্কের জনগণ যদি শেনজেন এলাকায় ভিসামুক্ত প্রবেশের অধিকার না পায় তাহলে শরণার্থীদ ইস্যুতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে করা চুক্তিটি আটকে দিতে পারে দেশটির পার্লামেন্ট। ইইউ’কে সতর্ক করে দিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান এ মন্তব্য করেছেন।

গত মার্চে হওয়া চুক্তিটিতে ইইউ’র পাসপোর্টমুক্ত শেনজেন এলাকায় প্রবেশাধিকারের বিষয়টি ছিল তুরস্কের প্রধান একটি দাবি। তবে ইইউ জানায়, প্রবেশাধিকার অনুমোদন করতে পারার আগে সন্ত্রাস আইনসহ তুরস্কেককে নির্দিষ্ট শর্ত পূরণ করতে হবে।

চুক্তি অনুসারে শেনজেন এলাকায় ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার পেতে হলে জুনের শেষ নাগাদ তুরস্ককে ৭২টি শর্ত পূরণ করতে হবে। তবে সোমবার এরদোয়ানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করা জার্মান প্রেসিডেন্ট অ্যাঞ্জেলা মেরকেল বলেছেন, সম্ভবত শর্তগুলো সম্পূর্ণ করার যথেষ্ট  সময় নেই।

এ রকম পরিস্থিতিতে ইস্তাম্বুলে ‘ওয়ার্ল্ড হিউম্যানিটারিয়ান সামিট’র সমাপনী অনুষ্ঠানে এরদোয়ান বলেন, ‘যদি এটা না হওয়ার দিকে যায়। তবে তুর্কি প্রজাতন্ত্রের পার্লামেন্ট থেকে চুক্তি স্বীকৃতির কাঠামোর মধ্যে কোনো সিদ্ধান্ত বা আইন আসবে না।’ এ ছাড়া ইইউর প্রতিশ্রুত অর্থ এখনো ছাড় দেয়া হয়নি বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ইউরোপ অভিমুখে শরণার্থী স্রোত ঠেকাতে ইইউ ও তুরস্কের মধ্যে ওই চুক্তিটি হয়েছিল। তুরস্কের পক্ষে প্রধানত দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী আহমেদ দাভোতগলু চুক্তিটি নিয়ে আলোচনা করেছিলেন। কয়েকদিন আগেই পদত্যাগ করেছেন আহমেত দাভোতগলু।