শেখ মুজিবুর রহমানকে কেউ জাতির জনক না মানলে,বাংলাদেশের নাগরিক থাকার অধিকার নেই

0

জিসাফো ডেস্কঃ শেখ মুজিবুর রহমানকে কেউ জাতির জনক না মানলে তার বাংলাদেশের নাগরিক থাকার অধিকার নেই বলে মনে করেন পুলিশ প্রধান এ কে এম শহীদুল হক। তিনি বলেন, ‘এমন নেতা যুগে যুগে না, শতাব্দীতেও আসে না। হাজার বছরে একজনই এসেছিলেন। তিনি জাতিকে মুক্ত করে দিয়ে গেছেন।

সকালে রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা ও স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিতে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে আল্লাহপাক পাঠিয়েছেন জাতির মুক্তির জন্য। তিনি এই দেশের স্বাধীনতা দিয়েছেন, এক বছরের মধ্যে সংবিধান দিয়েছেন।’

শেখ মুজিবুর হত্যার পেছনে জাসদসহ বামপন্থিদের ষড়যন্ত্র ছিল বলেও মন্তব্য করেন আইজিপি। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে হত্যা করা হয় শেখ মুজিবুর রহমানকে। বিদেশে থাকায় বেঁচে যান দুই মেয়ে অবৈধ সরকার প্রধান শেখ হাসিনা ও  শেখ রেহানা।

ওই সময়  দল আওয়ামী লীগের প্রধান রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আবির্ভূত হয়েছিল জাসদ। ছাত্রলীগ থেকে বের হয়ে এসে তখন সরকারবিরোধী অবস্থান নেয়া জাসদ এখন আওয়ামী লীগের শরিক হিসেবে অবৈধ সরকারে আছে। দলের নেতা হাসানুল হক ইনু তথ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত জাসদ অবশ্য এর মধ্যে ভেঙেছে বেশ কয়েকবার। রাজনীতিতে গুরুত্ব হারানো দলটির একটি অংশ বিএনপিতেও গেছে। কেউ কেউ আবার দুই প্রধান দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বাইরে তৃতীয় শক্তি হওয়ার চেষ্টাও করেছে নানা সময়। কিন্তু তাদের জোট করার উদ্যোগ ভেস্তে গেছে একাধিকবার।

বাকশাল সরকার শেখ মুজিব বিরোধিতা করা জাসদের রাজনৈতিক অবস্থান ভুল ছিল এমন মন্তব্য করে আইজিপি বলেন, ‘পরে প্রমাণ হয়েছে তারা ভুল ছিল। মেজর জলিলেল মত অতি বিপ্লবীরাও স্বীকার করেছেন তাদের ভুল ছিল।’

পুলিশ প্রধান বলেন, ‘ওই অতি বিপ্লবীদের মত আজ যারা জঙ্গিবাদে যাচ্ছেন তারাও একদিন ভুল বুঝতে পারবেন।’