লক্ষ্মীপুরে অস্ত্রসহ যুবলীগ-ছাত্রলীগের ৪ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

0

জিসাফো ডেস্কঃ লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার আলাদাদপুর এলাকা থেকে হাজিরপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক মনির পহাসেনসহ ৪ সন্ত্রাসীকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে তিনটি এলজি ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। আজ রোববার ভোর রাতে র‌্যাব-১১ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃত অন্যরা হচ্ছেন, হাজিরপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য সাইফুল ইসলাম। একই উপজেলার চৌপল্লী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সদস্য ফাহাত বিন আবদুল আজিজ ও জাহিদ হাসান জনি।

র‌্যাব জানায়, রোববার ভোররাতে আলাদাদপুর এলাকায় মনির হোসেনের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা ওই এলাকায় একত্রিত হয়। তাদের উদ্দেশ্য ছিল যে কোন ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটানো। এ খবর পেয়ে র‌্যাব-ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় স্থানীয় চিহিৃত সন্ত্রাসী মনির হোসেন, সাইফুল ইসলাম, ফাহাদ বিন আবদুল আজিজ ও জাহিদ হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে তিনটি এলজি ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে এলাকায় চাঁদাবাজি ও বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডসহ অপরাধমূলক কাজের সাথে জড়িত রয়েছে বলে দাবী করেন র‌্যাব।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, মনির হোসেন এলাকার চিহিৃত সন্ত্রাসী। তার সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ। যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকার কারণে তার ভয়ে অনেকে কথা বলার সাহস পর্যন্ত পাইনি বলে অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।

হাজিরপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. বাবুল পাটওয়ারী ও যুবলীগের সাবেক সভাপতি কাজী আবদুর রহিম সাংবাদিকদের জানান,মনির হোসেন ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক। এছাড়া সাইফুল ইসলাম যুবলীগের সক্রিয় কর্মী। অপরদিকে সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মোজাম্মেল হোসেন মিজান পাটওয়ারী জানান, সম্প্রতি বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে হাজিরপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি স্থগিত করা হয়েছে। ফলে বর্তমানে মনির হোসেন যুবলীগের কোন দায়িত্বে নেই। চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক কাজী মামুনুর রশিদ বাবলু জানান, ফাহাদ বিন আবদুল আজিজ ও জাহিদ হোসেন ছাত্রলীগের কেউ নয়।

র‌্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নরেশ চাকমা জানান, গ্রেপ্তারকৃতরা এলাকার চিহিৃত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী। তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে মামলার প্রস্তুুতি চলছে।