মোদির সফরকে ঘিরে কাশ্মীর যেন দুর্গ

0

ঢাকা: শনিবার জম্মু কাশ্মীর সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার এ সফরকে ঘিরে গোটা রাজ্য জুড়ে নেয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এ কারণে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া বর্তমান কাশ্মীরকে দুর্গ বলে উল্লেখ করেছে।

কাশ্মীর সফরকালে প্রধানমন্ত্রী মোদি শ্রীনগরে দুটি জনসভায় বক্তব্য রাখবেন। এছাড়া তার একাধিক উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করারও কথা রয়েছে।

তার এ সফরকে কেন্দ্র করে রাজ্য জুড়ে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। জম্মু-শ্রীনগর মহাসড়কে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ ও আধা সামরিক বাহিনী। এছাড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে দেয়া হয়েছে শ্রীনগরের শের ই কাশ্মীর ক্রিকেট স্টেডিয়ামটিকেও। এখানেই বিশাল জনসমাবেশে বক্তব্য রাখার কথা ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর। গোটা এলাকা জুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে অসংখ্য সেনা পুলিশ। জনগণের গতিবিধি নজরে রাখার জন্য বসানো হয়েছে একাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা।

নিরাপত্তা বাহিনীর অতিরিক্ত সতর্কতার কারণে শ্রীনগরে অঘোষিত কারফিউ পরিস্থিতি বিরাজ করছে বলে জানিয়েছে ‘হিন্দুস্থান টাইমস’ পত্রিকা। ফলে বন্ধ রয়েছে শ্রীনগরের অধিকাংশ দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠা ও অফিস আদালত। এছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্টানগুলোও বন্ধ রয়েছে। রাজ্যের কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শুক্রবার ও শনিবারের পরীক্ষাগুলো বাতিল করা হয়েছে। শহরে ঢোকার মুখে চেক বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশি চালানো হচ্ছে বলেও জানা গেছে।

একই দিনে ওই ক্রিকেট মাঠ সংলগ্ন এলাকায় পাল্টা সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছিল কাশ্মীরের স্বাধীনতাপন্থি দলগুলো। কিন্তু গত কয়েক দিনের পুলিশি তৎপরতার মুখে তাদের সে প্রচেষ্টা বানচাল হয়ে গেছে। ইতিমধ্যে শত শত নেতা কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এছাড়া গৃহবন্দি করা হয়েছে সৈয়দ আলী শাহ গিলানি এবং মিরওয়াইজ উমর ফারুকের মত প্রথম সারির নেতাকে।

প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে জম্মু কাশ্মীর সীমান্তে সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে বিএসএফ রক্ষীদেরও।

মোদির কাশ্মীর সফরের এই বাড়াবাড়ি  নিরাপত্তার সমালোচনা করেছেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং বিরোধী দল ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আবদুল্লাহ। তিনি অভিযোগ করে বলেছেন, সরকারি কর্মচারী, পুলিশ এমনকি দিনমজুরদের পর্যন্ত মোদির সভায় যোগ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে কাশ্মীর সরকার।