ভারতীয় শ্যুটারকে গুলি করে হত্যা

0

ঢাকা: ভারতের সাবেক জাতীয় শ্যুটার এবং আইনজীবী সুখমনপ্রীত সিং সিধুকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। ৩৫ বছর বয়সী সিধুর মৃত দেহ চণ্ডীগড়ের সেক্টর ২৭ এ পাওয়া যায়। তার মৃত্যুর সঙ্গে নারীঘটিত কোনো ব্যাপার থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

হরিয়ানা এবং পাঞ্জাব হাইকোর্টের সাবেক বিচারপতি এসএস সিধুর নাতি ভারতের এ জাতীয় শ্যুটার।

চণ্ডীগড়ের পাবলিক পার্কে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে সিধুকে গুলি করা হয় বলে প্রাথমিক তদন্তে জানায় পুলিশ।

পুলিশের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কে বা কারা স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে ফোন করে গুলিবিদ্ধ সিধুর কথা জানায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছে সঠিক জায়গাতেই সিধুকে পড়ে থাকতে দেখেন পুলিশের দলটি। সে সময় সিধুর দেহ থেকে প্রচুর রক্তপাত হচ্ছিণ বলে জানায় পুলিশ কর্তৃপক্ষ।

জাতীয় স্তরে পদক জয়ী শ্যুটার সিধুর বাড়ি মোহালির সেক্টর ৯১-এ। পেশায় আইনজীবী সিধু পাঞ্জাব প্যারা অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সচিব ছিলেন।

সিধুর মৃত্যুর পর ভারতের আরেক শ্যুটার অভিনব বিন্দ্রা বলেন, আমি তাকে ব্যক্তিগত ভাবে চিনিনা। তবে, জানতাম দশ বছর আগে তিনি শ্যুটারে প্রতিবছর জাতীয় পদক পেতেন। তবে, সম্প্রতি তার শ্যুটিংয়ের কর্মকাণ্ড কমে গিয়েছিল।

এ ঘটনার পর পুলিশ তদন্তে নেমেছ। সিধুর পরিবার থেকে বলা হচ্ছে ব্যক্তিগত ভাবে তার সঙ্গে কারো বিবাদ ছিলনা। তবে, চাঞ্চল্যকর একটি তথ্য পেয়েছে তদন্তকারীরা। একটি সূত্র থেকে জানা যায়, সিধু প্রতিদিন তার ব্যক্তিগত মুঠোফোন থেকে তিনজন নারীর সঙ্গে কথা বলতেন। যার মধ্যে দু’জন ছিলেন পাঞ্জাবের আর বাকিজন ছিলেন দিল্লির। ফোন কলের সূত্র ধরেই পুলিশ তদন্দ করছে বলে জানা যায়।