ব্রাক্ষণবাড়িয়ায় বখাটের ছুরিকাঘাতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে মাদ্রাসা ছাত্রী

0

জিসাফো ডেস্কঃ ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার সরাইল থানার শাহবাজ পুর গ্রামের হাবলি পাড়া মহিলা মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। লালমিয়া পাড়ার তবুডাক্তার বাড়ির মেয়ে রায়হানা বেগম, পিতা:ইসলাম মিয়া। ১৩ই মার্চ সকাল ৯.০০ সময় রায়হানা মাদ্রাসা যাওয়ার পথে হাবলি পাড়ায় মসজিদের আড়াল থেকে অতর্কিতভাবে কামরুল নামের পশু চাপাতি নিয়ে ঝাপিয়ে পরে রায়হানার উপর। দু পায়ের রগ সহ পিঠে এলোপাথারি কোপানো শুরু করে,তাছারা শরীরের বিভিন্ন অংশে মারাত্মকভাবে আঘাত করে। এ অবস্থায় চিৎকার শুনে হাবলি পাড়ার স্থানীয় লোকজন রায়হানাকে কামরুলের হাত থেকে উদ্ধার করে, তৎখনাত কামরুল সব অস্র ফেলে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে একটি চটের বস্তা পাওয়া যায়, যার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের  ছোট ছুরি,বড়ছুরি,রামদা, চাপাতিসহ অনেক ধারালো অস্ত্র পাওয়া যায়। রায়হানাকে প্রথমে ব্রাক্ষণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার ঢাকা সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেন। কিন্তু সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল  অপারগতা প্রকাশ করলে পরবর্তীতে ইসলামি ব্যাংক হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে রায়হানা ICU তে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছে। উল্লেক্ষ্য আসামি কামরুল উক্ত গ্রামের পূর্ব লালমিয়া পাড়া বাসিন্দা। নির্ভরযোগ্য সূত্রে পাওয়া খবর সে শীঘ্রই প্রবাসে চলে যাবে।