বেগম খালেদা জিয়ারবেগম খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে তল্লাশির প্রতিবাদে সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ

0

উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে’ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে পুলিশি তল্লাশির প্রতিবাদে আজ রবিবার দেশজুড়ে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে বিএনপি। শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে এই বিক্ষোভ সমাবেশের ঘোসণা দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। এদিকে দলীয় চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে তল্লাশির প্রতিবাদে তাৎক্ষণিকভাবে সারাদেশে বিক্ষোভ করেছে বিএনপি ও তাদের অঙ্গসংগঠনগুলো। রাজধানীতে বিএনপির বিক্ষোভ রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে তল্লাশির প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছে দলটি। কার্যালয়ের সামনে বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনগুলো বিক্ষোভ মিছিল থেকে সরকারবিরোধী স্লোগান দিচ্ছে। যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকুসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী মিছিলে উপস্থিত রয়েছেন। শনিবার দুপুরে গুলশান অফিসের সামনের সড়ক বন্ধ করে দিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে মহিলা দল কেন্দ্রীয় কমিটি। সংগঠনটির সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এসময় সাবেক এমপি হেলেন জেরিন বলেন, গুলশান অফিসে পুলিশ কেন সরকারকে জবাবদিহিতা করতে হবে। একই সঙ্গে প্রত্যাহার করতে হবে জিয়া পরিবারের সদস্যদের নামে মিথ্যা মামলা। রাজশাহীতে যুবদলের বিক্ষোভে পুলিশের বাধা খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে তল্লাশির প্রতিবাদে রাজশাহীতে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিক্ষোভ মিছিলে বাধা দিয়েছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে নগরীর মালোপাড়া দলীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের বাধামুখে পড়ে তাদের বিক্ষোভ মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়। পরে তারা সেখানে বসে পড়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রাজধানীর গুলশানে খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে পুলিশের তল্লাশীর প্রতিবাদে মহানগর যুবদল বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দেয়। দুপুরে মহানগর বিএনপিসহ যুবদলের নেতাকর্মীরা মালোপাড়ায় অবস্থিত দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হন। পরে সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। পুলিশের বাধায় নেতাকর্মীরা সেখানে বসে পড়ে সংক্ষপ্তি প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলন, মহানগর যুবদলের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট। সমাবেশ পরিচালনা করেন নগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন। চট্টগ্রামে বিএনপির বিশাল বিক্ষোভ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে পুলিশি তল্লাশির প্রতিবাদে চট্টগ্রাম নগরীতে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল করেছে মহানগর বিএনপি।

শনিবার সকাল ১১টায় বিক্ষোভ মিছিলটি নগরীর প্রেসক্লাব চত্বর থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কাজীর দেউড়ি মোড়ে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন। ডা. শাহাদাত বলেন, খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে পুলিশি তল্লাশি আওয়ামী লীগের এক অশুভ চক্রান্ত ছাড়া আর কিছুই নয়। বিএনপি যখন দেশের মানুষের ভোটাধিকার ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে সহায়ক সরকার গঠনের মাধ্যমে অবাধ ও সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছে, ঠিক সেই মুহূর্তে সরকার এই ধরনের দুরভিসন্ধিমূলক আচরণ করছে। কিন্তু সরকারের এহেন অগণতান্ত্রিক কর্মকাণ্ড চলতে থাকলে সারাদেশের বিএনপির নেতাকর্মীরা হাতপা গুটিয়ে বসে থাকবে না। বগুড়ায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে পুলিশী তল্লাশীর প্রতিবাদে বগুড়া জেলা বিএনপি বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

শনিবার বেলা ১২ টায় বগুড়া শহরের নবাববাড়ি সড়কে জেলা বিএনপি অফিসের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগের পালানোর সময় এসেছে। কিন্তু তাদেরকে পালাতে দেয়া যাবে না। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নেতাকর্মীদেরকে ইতোমধ্যেই পালানোর ঈঙ্গিত দিয়েছেন। তিনি বলেন, বিএনপিকে পুলিশ বেস্টনীর মধ্যে রেখে দেয়া হয়েছে। এখন সময় এসেছে, অপেক্ষা করুন, বেগম জিয়া ও তারেক রহমান আন্দোলনের ডাক দিবেন। আন্দোলনের ডাক এলে সকল বেস্টনী ভেঙ্গে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে ঝাপিয়ে পড়ার জন্য তিনি নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান। গাইবান্ধায় বিএনপির বিক্ষোভ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে হয়রানিমূলক পুলিশি তল্লাশির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে গাইবান্ধা জেলা বিএনপি। শনিবার এ কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় বক্তারা বিএনপির গুলশান কার্যালয়ে হয়রানিমূলক পুলিশি তল্লাশির প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান। গাইবান্ধা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুন্নবী টিটুলের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক এমপি সাইফুল আলম, সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান সরকার, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুর মোর্শেদ, শহর বিএনপির সভাপতি শহীদুজ্জামান শহীদ, কৃষকদল সভাপতি ইলিয়াস হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহমেদ, এসএম কামাল হোসেন, যুবদল নেতা রাগিব চৌধুরী, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি খন্দকার জাকারিয়া, সাবেক ছাত্রদল নেতা জাহিদুন্নবী এবং জাসাস সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ প্রমুখ।