বাংলাদেশ প্রতিদিন বিক্রি করলে খুন করে ফেলবো: ভালুকার এমপি

0

জিসাফো ডেস্কঃ আবারও শিল্পাঞ্চল খ্যাত ময়মনসিংহের ভালুকায় বাংলাদেশ প্রতিদিন প্রবেশে বাধা দিয়েছেন এমপি’র আলোচিত সেই ভাতিজা রওনক শিহাব রব্বানি খাজা ওরফে খাজা বাবা। এমনকি বাংলাদেশ প্রতিদিন বিক্রি করলে হকারদের খুন করা হবে বলে স্থানীয় এমপি ডা. এম আমান উল্লাহর পক্ষ থেকে হুমকি দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

এমপির বহুল আলোচিত-সমালোচিত এ ভাতিজা এবারের পদক্ষেপ দেশের সর্বাধিক প্রচারিত এক নম্বর এ দৈনিকটির বিরুদ্ধে। তার নানা কর্মকাণ্ডে ইতোমধ্যে ভালুকার জনমনে নাভিশ্বাস চরমে ওঠার পর এবার বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিরুদ্ধে উঠেপড়ে লাগার এ বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না শত শত পাঠক। তারা এমপির গুনধর এ ভাতিজার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছেন।

সূত্র মতে, এমপি’র ভাতিজা ও যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বাক রওনক শিহাব রব্বানি খাজা ওরফে খাজা বাবা গতকাল শুক্রবার রাতে স্থানীয় সংবাদপত্র এজেন্টদের হুমকি দিয়ে বলেন, বাংলাদেশ প্রতিদিন ভালুকায় আসবে না। যদি আসে তাহলে দোকানে তালা ঝুলবে। এমনকি খুন করা হবে। 

ফলে দু’দিন পর আবারও স্থানীয় পাঠকরা বাংলাদেশ প্রতিদিন পাঠ করা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এমন পদক্ষেপের কারণে পাঠক মহলে এমপি ও তার পরিবারের প্রতি বিষেদাগার সৃষ্টি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন হাবিবুর রহমান নামের স্থানীয় এক শিক্ষক।

প্রসঙ্গত, গত ৮ নভেম্বর এমপি আমান উল্লাহ’র তিন ভাতিজাদের নিয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিনে ‘এমপির বেপরোয়া ভাতিজারা’ শিরোনামে খবর প্রকাশিত হয়। ২৪ ডিসেম্বর ভালুকা পৌরসভা নির্বাচনের হালচাল সম্পর্কে ‘নৌকার বিপক্ষে আওয়ামী লীগের এমপি’ শিরোনামে সরেজমিনে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় বাংলাদেশ প্রতিদিনে। গত ২৯ ডিসেম্বর ‘ভালুকায় এমপি আমান উল্লাহ পরিবারের শাসনে নিষিদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিদিন’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। দেশের এক নম্বর এ দৈনিকটিতে পর্যায়ক্রমে নানা অনিয়ম, দুর্নীতি, দখলবাজি’র চিত্র উঠে আসায় ভালুকায় বাংলাদেশ প্রতিদিন নিষিদ্ধ ঘোষণা করে এমপি’র পারিবারিক ক্যাডাররা।