বাংলাদেশের রাজনীতিতে বলির পাঠা দুই বিদেশী নাগরিক!!!

0

06-01-14-pm--press-confer-3_31187_0

বেশ কিছুদিন যাবত শেখ হাসিনা ও তার পুত্র মহাসয় সজিব ওয়াজেদ জয় জঙ্গি জঙ্গি বলে বলে খুব চিল্লাপাল্লা করে আসছে। “প্রিয় পাঠক শেখ হাছিনা ও সজিব ওয়াজেদ জয়ের আগাম বাণী ও ঘটনা গুলো খেয়াল করুন” কিছু দিন আগে দেখলাম সজিব ওয়াজেদ জয় তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে বাংলাদেশে জঙ্গি দমনের জন্য সাহায্য চেয়েছে অামেরিকার কাছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যখন লন্ডনে যাবার প্রস্তুতি নিলেন ঠিক তখন শেখ হাছিনা ব্রিটিশে জঙ্গি দের প্রশ্রয় না দেওয়ার জন্য সতর্ক করে দিলেন। শেখ হাছিনা যখন অামেরিকায় তখন প্রথম খুন হলেন ইটালির নাগরিক সিজার তাভেলা। অামেরিকাতে বসে সাথে সাথে শেখ হাছিনা বলে দিলেন এই হত্যার পিছনে বিএনপি জামাতের হাত আছে।চার দিনের মাথায় খুন হলেন জাপানের নাগরিক হোশি কোনিও তখনও তিনি বলে দিলেন বি এন পি জামাতের হাত আছে।তদন্ত ছাড়াই আসামি সনাক্ত হয়ে গেল।তারপর তিনি বাণী দিলেন আমি দেশে গিয়ে এর ব্যবস্থা নিচ্ছি।শেখ হাছিনা দেশে আসা মাত্র ২৪ ঘন্টায় আটক করলো ২৩০০ আম জনতা!!! কিন্তু লক্ষ্যনীয় বিষয় যখন হত্যা কান্ড ঘটলো তখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাণী দিলেন দেশে কোন জঙ্গি নেই।

150104153828_islamic_state_640x360_manbar

দেশে কত জন চোর বাটপার বা জঙ্গি আছে প্রধানমন্ত্রীর চাইতে ভাল বলতে পারবেন একজন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কিন্তু তিনি অশিকার করলেন কারন কি? প্রধানমন্ত্রী যখন জানতেন দেশে জঙ্গি আছে এবং কে এই বিদেশী নাগরীকদের হত্যা করবে তাহলে আগে থেকে কোন ব্যবস্থা নিলেন না কেনো? হত্যার পর কেনো একদিনে ২৩০০ মানুষ আটক করা হল? তাহলে কি ধরে নিতে পারিনা যে রাজনৈতিক ফায়দা লুটার জন্য শয়ং শেখ হাছিনা এই হত্যা যোগ্যের সাথে জড়িত? কোটি টাকার তথ্য উপদেষ্টা অামেরিকাতে বসে তার ফেসবুকে মিথ্যাচার করে যাচ্ছে জাতীয়তাবাদীদের মনবল নষ্ট করার জন্য নেতাকর্মীদের বিভ্রান্ত করার জন্য। আজকে সজিব ওয়াজেদ জয় তার ফেসবুকে লিখেছেন “নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র থেকে তিনি জানতে পেরেছেন বিদেশী হত্যা কান্ডের পিছনে বি এন পি জামাত জড়িত।খবরটা তাকে লন্ডন বি এন পি’র কোন একজন দিয়েছে” এই কথার মাধ্যমে সজিব ওয়াজেদ জয়ের ভীরুতা প্রকাশ করেছেন।আওয়মী লীগ চরম বেকায়দায় আছে তা পরিস্কার করে দিয়েছেন।

38624_1567444909807_1345964914_1509911_4390674_n

কারন জাতীয়তাবাদী দলকে নির্যাতন করে মামলা হামলা গুম খুন করেও দমিয়ে রাখতে পারছেনা আওয়মী লীগ। তাই দ্বিতীয় ট্রাম কার্ড হিসেবে দলের নেতাকর্মীদের বিভ্রান্ত করার জন্য মিথ্যা অপপ্রচার করে যাচ্ছে। সজিব ওয়াজেদ জয় আপনি একটা কাচ্চা খেলোয়ার। আওয়মী লীগ নিজেদের ফায়দা লুটতে গোটা জাতিকে জঙ্গি রুপে পরিচিত করতে চাইছে।ওরা দেশের জন্য নয় নিজেদের জন্য রাজনীতি করে। কোন কর্মচারী তার দাপ্তরিক কাজ বাড়ীতে বসে করতে পারেনা। অথচ সজিব ওযাজেদ জয় বাংলাদেশের তথ্য উপদেষ্টা হয়ে বিদেশের মাটিতে বসে কোটি টাকার উপরে বেতন নিচ্ছে যা পৃথিবীর কোন রাষ্ট্র প্রধানও পায় না!!! জয়ের বেতনের টাকা কোথা থেকে আসে একবার ভেবে দেখেছেন কি? হ্যাঁ এই টাকা আপনার আমার পকেট থেকে দিচ্ছে। বিশ্ব বাজারে জ্বালানী তেলের দাম কমেছে কিন্তু বাংলাদেশে কমেনি। বিদ্যুৎ বিল বেড়েই চলেছে দ্রব্যমূল্য আকাশ ছোয়া।জাতিকে সুশিক্ষিত করা সরকারে দায়িত্ব অথচ এই সরকার শিক্ষার্থীদের উপর ভ্যাট আরোপ করেছে।প্রশাসনে কর্মরত সকারের বিভিন্ন আপকর্মের স্বাক্ষীদের বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে আটক করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে হত্যা করছে। দেশের বিচার বিভাগে ইচ্ছে মত হাল চাষ করছে।

enamul399-1443864505-b88338f_xlarge

দেশের মানুষকে রক্তচোষার মত চুষে খাচ্ছে।ভারতকে সুল্ক মুক্ত ট্রানজিট দিয়েছে তাতে বাংলাদেশ কোটি কোটি ডলার রাজস্ব হারাচ্ছে।আর সিমান্ত এলাকাতে আমার ভাইদের হত্যা করছে ভারতের বি এস এফ সরকারের কোন প্রতিবাদ নেই।ভারতের সকল ফেনসিডিল কারখানা বাংলাদেশের সীমান্তের কাছে যাতে সহজে দেশের যুব সমাজকে নেশাগ্রস্থ করে ধ্বংশ করতে পারে। মূলকথা : আওয়মী লীগ শুধু ক্ষমতা প্রেমী দেশ প্রেমী নয়।দেশের মানুষের রক্তের উপর দাঁড়িয়ে তারা ক্ষমতায় থাকবে!

লেখকঃ রহস্যময়ী মুখোশ

লেখাটি রহস্যময়ী মুখোশ এর অনুমতিক্রমে প্রকাশিত হল। এই লেখা সম্পূর্ণ রহস্যময়ী মুখোশ এর ব্যাক্তিগত অভিমত, এর দায় কোনো ভাবেই ওয়েব সাইট এর সাথে জড়িত নয়।