পৌর নির্বাচনের হাওয়া-৩ টিতে বিএনপির প্রার্থী চূড়ান্ত

0

নাবিল চৌধুরী,সুনামগঞ্জঃ বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে পৌর নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত জানানোর পরই জনমনে ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে কে হচ্ছেন তাদের প্রার্থী। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের পর বিএনপির প্রতিটি ইউনিট নড়েচড়ে বসেন । তারা জোড় সাংগঠনিক তৎপরতার মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই কাজ শুরু করে গুটিয়ে এনেছেন। সুনামগঞ্জের চারটি পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাইয়ের একদিন পরই মেয়র পদে বিএনপির দলীয় প্রার্থীর ঘোষণা এসেছে জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে। চারটি পৌরসভার মধ্যে রবিবার তিনটিতে একক দলীয় প্রার্থীর নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রীয় বিএনপির কাছে পাঠানো হয়েছে।

সুনামগঞ্জ পৌরসভায় পৌর বিএনপি নেতা জেলা জিয়া পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ শেরগুল আহমদ, দিরাই পৌরসভায় উপজেলা যুবদলের সভাপতি মঈনুদ্দিন চৌধুরী মাসুক, ছাতক পৌরসভায় পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক শামছুর রহমান সামছুকে একক দলীয় প্রার্থী নির্বাচিত করে তাদের নাম কেন্দ্রীয় বিএনপির কাছে পাঠানো হয়েছে। তবে জগন্নাথপুরে উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাজু আহমেদ রাজু ও বর্তমান পৌর মেয়র আখতার হোসেনের ভাতিজা বিএনপি নেতা আবিবুল বারি আয়হান দুইজনেই নির্বাচন করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করায় কেন্দ্রে এই দুইজনের নাম পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। জগন্নাথপুরে শেষ পর্যন্ত কে হবেন দলীয় প্রার্থী তা জানতে কয়েক দিন অপেক্ষা করতে হবে। জেলা বিএনপির আহ্বায়ক নাছির উদ্দিন চৌধুরী প্রার্থী বাছাই সংক্রান্ত সর্বশেষ এই অবস্থা জানিয়েছেন।

তবে জেলা বিএনপির আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, সুনামগঞ্জ পৌরসভায় তিন প্রার্থীর নাম কেন্দ্রীয় কমিটির নিকট পাঠানো হয়েছে। এই তিন প্রার্থী হলেন, পৌর বিএনপির আহবায়ক রেজাউল হক, পৌরবিএনপি নেতা জেলা জিয়া পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ শেরগুল আহমদ ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল নোমান । এদিকে কেন্দ্রীয় বিএনপির বরাত দিয়ে রবিবার জাতীয় এক গণমাধ্যমে জগন্নাথপুরে বিএনপি নেতা আবিবুল বারি আয়হান ও দিরাইয়ে মঈনুদ্দিন চৌধুরী মাসুক বিএনপির দলীয় চূড়ান্ত প্রার্থী বলে সংবাদ প্রকাশিত হলে জেলা বিএনপির আহবায়ক নাছির উদ্দিন চৌধুরী ও আহবায়ক কমিটির প্রথম সদস্য কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন রবিবার জগন্নাথপুর পৌরসভায় সম্ভাব্য দুই প্রার্থীর নাম কেন্দ্রে পাঠিয়েছেন। জগন্নাথপুরে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্তের বিষয়টি তাঁরা অবগত নন বলে জানিয়েছেন। তবে কেন্দ্রীয় কমিটি কীভাবে এই দুই প্রার্থী নির্ধারণ করলেন তার কোন ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি।

জেলা বিএনপির আহবায়ক সাবেক এমপি নাছির উদ্দিন চৌধুরী রবিবার সন্ধ্যায় বলেছেন, সুনামগঞ্জে শেরগুল আহমদ, দিরাইয়ে মঈনুদ্দিন চৌধুরী মাসুক ও ছাতকে সাইফুর রহমান সামছু দলীয় একক প্রার্থী। তবে জগন্নাথপুর পৌরসভায় দুইজন প্রার্থীর নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। এখন কেন্দ্রীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে, কাকে জগন্নাথপুরে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করা হবে।’

সুনামগঞ্জে তিন প্রার্থীর নাম প্রস্তাবের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘ তিনজনের নামের বিষয়ে আমি কিছু জানি না। আমাদের কাছে মেয়র পদে নির্বাচন করার জন্য শেরগুল আহমদ আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তিনি ছাড়া আর কোন প্রার্থী আমাদের কাছে প্রার্থীতার জন্য বলেননি। আমি শেরগুল আহমদের একক নামই কেন্দ্রে পাঠিয়েছি।

তবে জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির প্রথম সদস্য সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন জানিয়েছেন, ‘আমি কয়েকদিন আগে সুনামগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে রেজাউল হক, শেরগুল আহমদ ও আব্দুল্লাহ আল নোমানসহ তিনজনের নাম ও জগন্নাথপুর পৌরসভায় দুই প্রার্থীর নাম পাঠিয়েছি। এখন চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা করবেন কেন্দ্রীয় বিএনপি।’ ছাতকে সাইফুর রহমান সামছু ও দিরাইয়ে মঈনুদ্দিন চৌধুরী মাসুক একক দলীয় প্রার্থী বলে শুধু তাদের নামই কেন্দ্রীয় কমিটির নিকট পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।