নৌকায় ভোট না দেয়ায় বগুড়ায় দোকানে আগুন

0

জিসাফো ডেস্কঃ পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট না দেয়ায় এক ব্যবসায়ীর প্রতিষ্ঠানে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে। এতে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পরে অন্য ব্যবসায়ী ও আশপাশের লোকজন গিয়ে আগুন নিভিয়ে ফেলে।

শনিবার দুপুরে আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌরসভার মিনি বাসস্টান্ড এলাকায় অগ্নিসংযোগের এ ঘটনা ঘটে। 

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীর নাম রোস্তম ইসলাম। তিনি আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের তিয়র পাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি মিনি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় লেপ তোষকের ব্যবসা করেন। 

রোস্তম ইসলামের অভিযোগ, সান্তাহার পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা আসলাম সিকদার পরাজিত হওয়ার পর থেকেই নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। এক পর্যায়ে নৌকা মার্কায় ভোট না দেয়ার অপরাধে দোকান পুড়িয়ে দেয়ারও হুমকি দেন। শনিবার দুপুর একটার দিকে আসলাম সিকদার নিজে বোতলে করে কোরোসিন নিয়ে এসে তার দোকানে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এসময় তার সঙ্গে আরো কয়েকজন সঙ্গি ছিল। আগুনে দোকানে থাকা লেপ-তোষকসহ তুলা পুড়ে যায়। পরে আশপাশের দোকানি ও পথচারীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে সান্তাহার পৌর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আসলাম সিকদার বলেন, ‘ঘটনার সময় সান্তাহার শহরে ছিলাম না। দোকান মালিক রোস্তম একজন জামায়াত কর্মী। এ কারণে সে মিথ্যা অভিযোগ করছে। তবে দোকানে আগুন দেয়ার সঙ্গে আমি কোনোভাবেই জড়িত নই।’

বিষয়টি সম্পর্কে কিছুই জানেন না সান্তাহার পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কাসেম। তিনি বলেন, ‘দলের কেউ এ ধরনের ঘটনা ঘটালে দলীয় ভাবে তার বিরুদ্ধে শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

সান্তাহার টাউন পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (টিএসআই) সানোয়ার হোসেন জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি খালি কোরোসিনের বোতল উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এ ঘটনায় এখনও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।