নিপীড়ন দুঃশাসনে দেশ আজ ধ্বংসের সর্বশেষ প্রান্তে:মির্জা ফখরুল

0

জিসাফো ডেস্কঃ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার দেশের বহুদলীয় গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নটুকু মুছে ফেলে আবারো একদলীয় শাসনের নিষ্পেষণে সারা জাতিকে বন্দী করছে। তাদের নির্যাতন, নিপীড়ন দুঃশাসনে দেশ আজ ধ্বংসের সর্বশেষ প্রান্তে উপনীত হয়েছে। দেশের সার্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতা আজ হুমকির মুখে।’

গণমাধ্যমে শনিবার দুপুরে পাঠানো দলটির সহ-দফতর সম্পাদক মুহম্মদ মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত এক বাণীতে মির্জা ফখরুল এ মন্তব্য করেন। দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এ বাণী দেন তিনি।

বাণীতে মির্জা ফখরুল বলেন,  ‘এই দুঃসময়ে তারেক রহমানের নিঃশঙ্ক মনোবল ও দৃঢ় নেতৃত্ব দুঃশাসনের বিরুদ্ধে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে উজ্জীবিত করছে। আমি তার আশু সুস্থতা ও সুখী ও দীর্ঘজীবন কামনা করছি। তার প্রতি আমার প্রাণঢালা শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘দেশাত্ববোধে জারিত হওয়া অপার সম্ভাবনাময় তারুণ্যদীপ্ত নেতার অভ্যুদয় দেশী-বিদেশী চক্রান্তকারীরা কখনোই মেনে নিতে পারেনি। তাই ১/১১-তে মঈনউদ্দিন-ফখরুদ্দিনের সরকার তারেক রহমানকে নিঃশেষ করার জন্য মামলা, শারীরিক নির্যাতন ও ক্রমাগত অপবাদের ধারা বর্ষণ চালায়। কিন্তু তারপরও তাকে বিচলিত করা যায়নি, বিপর্যস্ত করা যায়নি তাঁর অটুট মনোবলকে।’

তিনি বলেন, ‘যাদের আন্দোলনের ফসল ছিল ১/১১ সরকার তারা ক্ষমতায় এসেই তারেকের বিরুদ্ধে নানামুখী চক্রান্তে আরো কয়েক ধাপ এগিয়ে যায়। অসংখ্য মামলা দিয়ে তাকে পর্যুদস্ত করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালায় আওয়ামী সরকার। তবুও তারা তারেক রহমানকে দুর্বল করতে পারেনি।’