দেশে রাজনৈতিক ভারসাম্য নষ্ট হওয়ায় পুলিশ এত বেপরোয়া হয়েছে : আসিফ নজরুল

0

জিসাফো ডেস্কঃ পুলিশের হয়রানি, চাঁদাবাজি ও ক্রসফায়ার আগের চেয়ে বেড়েছে। আবার অজ্ঞাতনামা আসামি করে গণগ্রেপ্তার চালানো হচ্ছে। অজ্ঞাতনামা আসামি করার ফলে তারা সহজে চাঁদাবাজি করতে পারছেন। অর্থাৎ দেশে রাজনৈতিক ভারসাম্য নষ্ট হওয়ায় পুলিশ এত বেপরোয়া হয়েছে।

চ্যানেল আইয়ে জিল্লুর রহমানের ‘তৃতীয় মাত্রা’ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা রাব্বী ও সিটি করপোরেশনের এক কর্মকর্তার ওপর পুলিশের নির্যাতনের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, পুলিশ রাজনৈতিক কারণে রাব্বীর ওপর নির্যাতন করেনি, তার কাছ থেকে পুলিশ চাঁদাবাজি করতে চেয়েছিল। আর সিটি করপোরেশনের সেই কর্মকর্তাকে পুলিশ মারছে আর বলছে- মাছের রাজা ইলিশ আর দেশের রাজা পুলিশ। আসলে পুলিশের কথাটি সত্য।

পুলিশের রাজনৈতিক ব্যবহার আগের চেয়ে অনেক বেশি বেড়েছে এমন মন্তব্য করে ড. আসিফ নজরুল বলেন, বর্তমানে পুলিশের চাকরি দুভাবে দেয়া হচ্ছে প্রথমটি টাকার বিনিময়ে অপরটি দলীয় পরিচয়ে। বিএনপির আমলেও এটা ছিল কিন্তু এত বেশি নয়।

তিনি বলেন, এখন খারাপের প্রতিযোগিতা বাড়ছে বিএনপি ক্ষমতায় আসলে পুলিশী নির্যাতন আরো বেশি হতে পারে। কোনো মানুষ যখন লবিংয়ের মাধ্যমে চাকরি পায় তখন সে কাউকে কেয়ার করেন না। আর যেসব পুলিশ ঘুষের মাধ্যমে চাকরি পায় তারা সেই ঘুষের টাকা তোলার জন্য আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে।

অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি প্রশ্নবিধ্য নির্বাচনের আগের আওয়ামী লীগ ও পরের আওয়ামী লীগের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। আগের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত আর এখনকার আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যরা নির্বাচন ছাড়াই নির্বাচিত হয়েছেন। এ নিয়ে জনমনে যথেষ্ট প্রশ্ন রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচন ছাড়াই সরকার সেজন্য আওয়ামী লীগের অনেক নেতা মনে করেন- তারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় আছেন, জনগণের ভোটে নয়। আর এই ম্যাসেজটা পুলিশের কাছে পৌঁছে গেছে। সেজন্য পুলিশ প্রধান বিরোধী দলের আন্দোলন দমানোর জন্য যে ভাষায় কথা বলেন তা আগের কোনো পুলিশ প্রধান বলেননি। অর্থাৎ পুলিশ সেজন্য নিজেদেরকে ‘দেশের রাজা বলতে পারেন’।