ঝালকাঠিতে মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা

0

জিসাফো ডেস্কঃ ঝালকাঠির রাজাপুরের আমতলা বাজারে আব্দুস ছালাম খান নামে এক মুক্তিযোদ্ধাকে তার প্রতিপক্ষরা পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেছে পরিবার। সোমবার বিকেলে রাজাপুরের সাতুরিয়া ইউনিয়নে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে আহতের পর মঙ্গলবার ভোরে তার মৃত্যু হয়। নিহত আব্দুস ছালাম খান (৬৫) ভান্ডারিয়ার শিয়ালকাঠি এলাকার বাসিন্দা ও একজন অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ছিলেন।

নিহতের ছেলে মোঃ মুরাদ হোসেন খান অভিযোগ করে বলেন, ‘আমার পিতা একজন মুক্তিযোদ্ধা ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। সম্প্রতি তিনি আঃ রহমান কিন্ডার গার্ডেন নামে একটি বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। গত সোমবার বিকেল ৫টার দিকে ওই বিদ্যালয়ের মুক্তা নামে এক শিক্ষিকার বাড়িতে যায়। এসময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে স্থানীয় ইউপি সদস্য বাচ্চু হাওলাদার ও শাহ আলমের নেতৃত্বে আরো কয়েকজন, শিক্ষিকার সাথে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ এনে আমার বৃদ্ধ বাবার উপর দুই দফায় হামলা চালিয়ে পিটিয়ে আহত করে।’

তিনি বলেন, ‘আমার বাবা গুরুতর আহত অবস্থায় এ সময় বাড়ীতে আসে। আমার বাবার এ অবস্থার কারো কাছে কিছু না বলে বিছানায় শুয়ে থাকে। এরপর মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৪টার দিকে আমার বাবার মৃত্যু হয়। পরে লোকমুখে আমরা বিস্তারিত ঘটনা শুনতে পাই।’

রাজাপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার শাহ্ আলম নান্নু বলেন, ‘এই সরকারে আমলে যদি জাতীর বীর সন্তান মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয় এর চেয়ে লজ্জার আর কিছু হতে পারে না। আমরা হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানাই একইসঙ্গে হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।’

ঝালকাঠি রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মুনীর উল গীয়স জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজাপুর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।