চিরচেনা পেছনের পথ ই বেছে নিল স্বৈরাচারী হাসিনা। জুল, মেহেদী ও মাইনুল কে অভিনন্দন

0
বন্ধু তোমাদের নিয়ে গর্ব হয়
**********************************
13227114_1674764822787756_3457488035453175530_n 13177341_1674764786121093_235013546571089747_n
এইতো গতকাল এর কথা, লন্ডন, যুক্তরাজ্য, জোন ৬, পিকাডেলি লাইন ও বাস গুলোতে স্বাভাবিকের তুলনায় বেশী ভিড়। আস্তে আস্তে সেই ভিড় ছড়িয়ে পড়ে সেন্ট্রাল লাইন, ভিক্টোরিয়া লাইন, জুবুলি লাইন সহ সকল আন্ডারগ্রাউন্ড ট্রেনে। ২৫ নাম্বার বাসেও ঠাই নাই। সবার গনতব্য একজন কে ঘিরেই। স্বৈরাচার, স্বাধীনতা কে বিক্রি করা ক্ষমতালোভী রক্তপিশাচিনী, লুটেরা, ভোট চোর হাসিনা কে যুক্তরাজ্যের তথা লন্ডনে প্রতিহত করা।প্রস্তুত লন্ডন বি এন পি। প্রস্তুত জুতা, পচা ডিম, কালো পতাকা ও গো ব্যাক হাসিনা সহ না না ফেস্টুন হাতে জাতীয়তাবাদের বীর সেনানী রা।
13249428_1599421490370764_1975594448_n 13236243_1599421503704096_548892251_n
 
Zul Afros প্রচার সম্পাদক, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দল, Mehedi Hasan যুক্তরাজ্য বি এন পি’র আহ্বায়ক কমিটির সদস্য, Mohammad Mainul Islam যুক্তরাজ্য বি এন পি’র এক জন একনিষ্ঠ ও নিঃস্বার্থ সমর্থক, তিন জনেই কাজের সুবাদে ও এলাকার সুবাদে বেশ ভালো বন্ধু, এই তিন জনেই আবার অনলাইনের অন্যতম জনপ্রিয় ও শীর্ষ জাতীয়তাবাদী প্লাটফর্ম জিয়া সাইবার ফোর্স – Zia Cyber Force এর প্রশাসক ও পরিচালক। এই তিন জন কেই সাবলীল ভুমিকায় অবতীর্ণ হতে দেখা গেছে গতকাল। বজ্রকন্ঠে হুংকার দিয়ে , শরীরের সবটুকু শক্তি দিয়ে পচা ডিম ও জুতা নিক্ষেপ করে প্রতিহত করেছে এই স্বৈর শাসক কে। হ্যা হাজারো জাতীয়তাবাদী দের তীব্র প্রতবাদ ও প্রতিরোধে অবশেষে সেই চিরচেনা পেছনের পথ কেই বেছে নেয় শেখ হাসিনা। তবে আমাদের ভালোলাগা টা একটু বেশী কারন এই হাজারো জাতীয়তা বাদী ভাইদের ভিড়ে যে ছিল আমাদের তিন জন বড়ই আপন জন।
13231105_1599421513704095_1102162679_n 13231052_1599421537037426_1927780782_n
 
অবৈধ বাকশালি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহর হিথ্রু বিমান বন্দর থেকে বাকিংহাম তাজ হোটেলের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় আন্দোলনকারীরা হাসিনার বিরুদ্ধে মুহুর্মুহু স্লোগান দিতে থাকে। গো ব্যাক হাসিনা গো ব্যাক হাসিনা। 
13246063_1599421533704093_956674511_n 13244739_1674764832787755_2819049027314076604_n
 
এ সময় যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনার গাড়িবহরে পঁচা ডিম ও জুতা নিক্ষেপ করে।হাসিনা ওয়াজেদ তীব্র আন্দোলনের মুখে দ্রুত পালিয়ে যায়। হোটেলের সামনের গেইট দিয়ে প্রবেশ না করে পিছনের গেইট দিয়ে চোরের মত প্রবেশ করে। হাসিনা ভারতের সমর্থনে যেভাবে চোরের মতো পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতা দখল করেছে; ঠিক সেভাবেই আন্দোলনকারীদের ধাওয়া খেয়ে পিছনের দরজা দিয়ে হোটেলে প্রবেশ করেছে। একজন অবৈধ প্রধানমন্ত্রীর জন্য এ ঘটনা কতটা লজ্জার। আমার মতে লজ্জার কিছু নেই।
 
বাংলাদেশে অব্যাহত মানবাধিকার লঙ্ঘন, ব্যাংক ডাকাতি, ভোট ডাকাতি, শেয়ার বাজার কেলেঙ্কারি,গুম-খুন, হামলা-মামলা, বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড ও বিচারিক হত্যাকান্ডের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্য বিএনপি এই প্রতিবাদ কর্মসূচির আয়োজন করে। প্রতিবাদকারীরা হাসিনার পতন দাবি করে স্লোগান দিতে থাকে। এছাড়াও, বিভিন্ন ব্যঙ্গ বিদ্রুপ পূর্ণ ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড ও ব্যানার নিয়ে হাসিনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান।
 

সবশেষে আন্তরিক অভিবাদন জানাই জিয়া সাইবার ফোর্স ZCF লন্ডন ইউনিট কে, যাদের অক্লান্ত পরিশ্রম, সাহসী পদক্ষেপ আমাদের কে করে অনুপ্রানিত সামনে এগিয়ে চলার জন্য, জ্বলিয়ে রাখে আশার আলো।

 
জিয়া সাইবার ফোর্স – Zia Cyber Force
জিয়া সাইবার ফোর্স ZCF
www.ziacyberforce.com
স্বাধীনতার সৈনিক(SOLDIER OF INDEPENDENT)
Dr. Zobaida Rahman
আদর্শে জিয়াউর রহমান
 
পরিবারের সকল প্রশাসক, ও পরিচালনা পরিষদের কলাকুশলী বৃন্দ।