চাল লুট করতে গিয়ে গণপিটুনিতে ৮ ডাকাত নিহত

0

নারায়ণগঞ্জ: জেলার আড়াইহাজার উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের পুরিন্দা বাজারে চাল লুট করতে গিয়ে গণপিটুনীতে ৮ ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও অন্তত ৪ জন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে একটি চালের দোকানে ডাকাতিকালে আটকের পর গণপিটুনিতে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহত ডাকাতদের মধ্যে চারজনের পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন- ময়মনসিংহ জেলার মধ্যপাড়া গ্রামের শওকত (৩০), একই গ্রামের রুবেল (২৮), জুয়েল ওরফে টিটু (৩২) ও নোয়াখালী জেলার রাজীব ওরফে রনি (৩৫)। এছাড়া আহত চারজন হলেন- মানিক (২৫), লোকমান (২৮), সজীব (২৭) ও সাব্বির (২২)।

আড়াইহাজার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফুর রহমান জানান, ভোরের দিকে ট্রাক নিয়ে ১৫-২০ জনের একদল ডাকাত পুরিন্দা বাজারে গফুর মিয়ার ভাই ভাই নামে চালের দোকানে ডাকাতি করতে আসে। প্রথমে তারা ওই বাজারের দুজন নৈশ প্রহরীকে বেঁধে চালের বস্তা ট্রাকে উঠাতে থাকে। এর ফাঁকে একজন প্রহরী হাত খুলে দৌড়ে পালিয়ে গিয়ে স্থানীয় মসজিদের মাইকে ডাকাত পড়েছে বলে ঘোষণা দেয়। এরপর আশপাশের কয়েক গ্রামের প্রায় পাঁচ শতাধিক লোক ঘটনাস্থলে এসে ডাকাতদের ধাওয়া করে তাদের ১২ জনকে ধরে ফেলে। ওই সময় গণপিটুনিতে অন্তত তিন জন মারা যান। পরে সকালে আরও চারজনের লাশ ডোবা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এছাড়া চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজন মারা যান। ঘটনাস্থল থেকে চল্লিশ বস্তা চালসহ একটি ট্রাক জব্দ করা হয়েছে।

নিহত ও আহতদের সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে প্রাথমিকভাবে প্রাপ্ত পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে বলে জানান  পরিদর্শক আরিফুর রহমান।

নৈশ প্রহরী নজরুল ইসলাম জামান ও মোতালেব মিয়া জানান, বুধবার রাত ৩টার পর একটি ট্রাকে (ঢাকা মেট্রো ট ১৮-৪৩১১) ১৫-২০ জনের সংঘবদ্ধ ডাকাত দল আসে আড়াইহাজার উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের পুরিন্দা বাজারে। এ বাজারটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশেই অবস্থিত। ডাকাতরা রাতে বাজারে আসার পর নিজেদের চাল ক্রেতা পরিচয় দেয় জামান ও মোতালেবের কাছে। তাদের কাছে গফুর ভূইয়ার মালিকানাধীন চালের গুদামের খবর জানতে চায়। অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর ওই দুই নৈশ প্রহরীর হাত পা বেঁধে ফেলে ডাকাতরা। তাদের মধ্যে একজন কোনোমতে দড়ির বাঁধন খুলে দৌড়ে স্থানীয় মসজিদে গিয়ে মুয়াজ্জিনকে বিষয়টি জানালে দ্রুত মাইকিং করা হয়। আর সে কারণেই ধরা পড়ে ডাকাতরা।

নজরুল ইসলাম জামান জানান, আমরা দুইজন (মোতালেব) মিলে দোকানের অবস্থান জানিয়ে দেয়ার পরেই আমাদের হাত পা দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। পরে গফুর ভূইয়ার মালিকানাধীন ভাই ভাই স্টোরের তালা ভেঙে অনেকগুলো বস্তা ট্রাকে তুলে ফেলে। আমি কোনোমতে বাঁধন খুলে স্থানীয় মসজিদে গিয়ে দ্রুত জানাই। পরে মাইকিং করার কারণেই ডাকাতদের ধরা সম্ভব হয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন জানান, ঘটনাস্থলে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আশপাশের ডোবা থেকে আরও ৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ডাক্তার জানিয়েছেন আহত ৫ জনের মধ্যে হাসপাতালে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এখনো পর্যন্ত তাদের পরিচয় সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।