চলছে এরশাদের ‘চিকিৎসা নাটক’!

0

জিসাফো ডেস্কঃ জাতীয় পার্র্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের হাসপাতালে ভর্তি নিয়ে এবারও ‘চিকিৎসা নাটকের’ গুঞ্জন উঠেছে খোদ দল ও দলের বাইরে।

ধারণা করা হচ্ছে, বরাবরের মতো এবারও রাজনৈতিক সংকট সামাল দিতে রওশন এরশাদসহ দলের সরকার পন্থীদের চাপে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এরশাদ।

দলের শীর্ষ পর্যায়ের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে  বলেন, পদত্যাগপত্র প্রস্তুত ছিলো, শুধু বাকি ছিল স্বাক্ষরের। এমন সময় নিয়মিত মেডিকেল চেকআপের অংশ হিসেবে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

তিনি আরো বলেন, স্যারের (এরশাদ) কোনো কিছুই হয়নি। চিকিৎসকরাও এ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। যারা জাপার টিকেটে সংসদ সদস্য এবং মন্ত্রী ও সরকারের সুবিধাভোগী- তারাই জোর করে স্যারকে অসুস্থ বানিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন।

‘২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগেও এরশাদ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কথা বলায় তাকে জোর করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলো। এটা একটা নাটক’- যোগ করেন এই নেতা।

দলের একজন ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, এরশাদ বৃহস্পতিবার সকালে মন্ত্রী পদমর্যাদার প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত থেকে পদত্যাগ করে চারদিনের সফরে রংপুর যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সিএমএইচে (সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল) ‘ভর্তি’থাকার কারণে তিনি রংপুর যেতে পারেননি। এটা রওশন ম্যাডামসহ জাপার মন্ত্রী ও সংসদদের চক্রান্ত। এরশাদের হাত পা বাধা।

তিনি জানান, হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে তাকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত থেকে সরিয়ে আনার জন্য চাপ দেওয়া হয়েছে। যাতে তিনি প্রকাশ্যে কাউকে কিছু বলতে না পারেন।

এ্ই নেতা আরও জানান, শনিবার দুপুরে বাসায় ফিরলেও কারো সঙ্গে কোনো কথা বলছেন না এরশাদ। চিকিৎসকরা তাকে বিশ্রামে থাকতে বলেছেন।

জাপা সূত্রে জানা গেছে, এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এরশাদের ছোট ভাই গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, তিনি সত্যিই অসুস্থ হয়েই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এটা কোনো নাটক বা চাপ নয়।

২ জানুয়ারি জাপার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এরশাদ বলেছিলেন, জাপাকে দেশের জনগণ ও গণমাধ্যম সত্যিকারের বিরোধী দল মনে করে না। আমি চাইলেই প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূতের পদ ছাড়তে পারি। কিন্তু সরকারে থাকা জাপার মন্ত্রীদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদকে অনুরোধ জানান। জাপা চেয়ারম্যান রওশন এরশাদকে বলেন, তিনিই (রওশন) এখন সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী।তিনি চাইলে সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকা নিতে পারেন।

মঙ্গলবার দুপুরে এরশাদকে ঢাকা সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আজ শনিবার দুপুরে তিনি বাসায় ফিরেন।