গদি ছাড়ার শেষ মূহুর্তে ওবামার আদেশে মুক্তি পাচ্ছেন চেলসি ম্যানিং

0

গোপন গোয়েন্দা তথ্য ফাঁসের অভিযোগে সাবেক সেনা কর্মকর্তা চেলসি ম্যানিংয়ের কারাদণ্ড মওকুফ করে দিয়েছেন মার্কিন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এর ফলে ২৯ বছর বয়সী চেলসি ২০৪৫ সালের পরিবর্তে চলতি বছরের ১৭ মে মুক্তি পাচ্ছেন।

উইকিলিকসের কাছে মার্কিন সামরিক বাহিনীর সাত লাখ গোপন নথি ফাঁস করার দায়ে ২০১৩ সালে ম্যানিং দোষী সাব্যস্ত হন। তাকে ৩৫ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়। তিনি ইরাকে মার্কিন সামরিক বাহিনীর গোয়েন্দা তথ্য বিশ্লেষক হিসেবে কাজ করতেন। ব্র্যাডলি ম্যানিং হিসেবে অভিযুক্ত হলেও পরবর্তীতে হরমোন থেরাপি নিয়ে তিনি নারী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে চেলসি ম্যানিং নাম ধারণ করেন।

সম্প্রতি ম্যানিংয়ের সাজা মওকুফ করে দেওয়ার ইঙ্গিত দেয় হোয়াইট হাউস। প্রেসিডেন্ট হিসেবে এটিই ওবামার শেষ নির্বাহী আদেশ। যেখানে তিনি ২০৯ জনের সাজার মেয়াদ কমানো এবং ম্যানিংসহ ৬৪ জনের সাজা কওকুফ করার আদেশ দেন।

 

ম্যানিংকে পুরুষ বন্দিদের সঙ্গে রাখার প্রতিবাদে কারাবন্দি অবস্থায় তিনি দু’বার আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। গতবছর তিনি তার হরমোন থেরাপি পাওয়ার দাবিতে অনশনও করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে মার্কিন ম্যানিংয়ের সরবরাহ করা বেশ কিছু নথি প্রকাশিত হয় বিকল্প গণমাধ্যম উইকিলিকসে। এসব গোপন নথিতে ইরাকে মানবাধিকার লঙ্ঘন ও আফগানিস্তানে তালেবানকে পাকিস্তানের সহযোগিতা করার মতো আরও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রকাশ পায়। এসব নথিতে অভিযোগ করা হয়, যুদ্ধাঞ্চলে বেসামরিক নাগরিকরা ঝুঁকিতে আছেন। এই তথ্য ফাঁস মার্কিন গোপন গোয়েন্দা ও সামরিক তৎপরতা অনেক দিক বিশ্ববাসীর সামনে উন্মোচন করেছিল।