‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’র কর্মসূচি নিয়ে টালবাহানা করবেন না: সরকারের প্রতি রিজভী

0

জিসাফো ডেস্কঃ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, অবৈধ ভোটারবিহীন সরকারের গণতন্ত্রের প্রতি যদি নুন্যতম শ্রদ্ধাবোধ থাকে তাহলে আশা করি গণতন্ত্র হত্যা দিবসের কর্মসূচি নিয়ে টালবাহানা করবে না।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১ টাই বিএনপির নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী জানান, ৫ জানুয়ারী গণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে বিএনপির পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়েছে। ঢাকাসহ সারাদেশে কর্মসূচী পালনের ব্যাপক প্রস্ততি নেয়া হচ্ছে।

রিজভী বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন ছিল ভোটারবিহীন বিতর্কিত একতরফা নির্বাচন। ক্ষমতায় টিকে থাকতেই সংবিধান সংশোধন করে দলীয় সরকারের অধীনে একটি একতরফা নির্বাচন করেছে আওয়ামী লীগ। যা ছিল একটি দেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে এক নির্লজ্জ তামাশা।

তিনি বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য জ্বালাও পোড়াও করে দেশকে ধ্বংসস্তুপ বানাতে যারা ছাড়েনি তারাই সংবিধান থেকে তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা ছেঁটে ফেলে দেয়। এটা যেন শাসক দলের জমিদারি মনোবৃত্তি।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশকে আওয়ামী লীগ নিজের তালুক বলে ভাবে বলেই বার বার জনগনের সঙ্গে ধোঁকাবাজি করতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করে না। ৫ই জানুয়ারির নির্বাচন দেশে-বিদেশে কেউই মেনে নেয়নি। ওই নির্বাচন নিয়ে বিশ্ব দরবারে গ্রহনযোগ্যতা পায়নি। আজো সে নির্বাচন বিশ্ববাসীর কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েই আছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতারাও সে সময় বলেছিল সে নির্বাচনটি ছিল নিয়ম রক্ষার র্নিবাচন। কিন্তু সে প্রহসনের নির্বাচন হয়ে যাওয়ার পর আওয়ামী নেতারা সে কথা ভুলে গিয়ে ক্ষমতা আঁকড়ে রাখলেন। ক্ষমতাক্ষুধা আর ক্ষমতাবিলাসিতা হচ্ছে আওয়ামী লীগের পরম ধর্ম।