গণতন্ত্র আবারও গভীর খাদের কিনারে: খালেদা জিয়া

0

জিসাফো ডেস্কঃ দেশে গণতন্ত্র আবারও গভীর খাদের কিনারে গিয়ে একদলীয় কর্তৃত্ববাদী শাসনের কবলে পড়েছে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচনের পর গণতন্ত্র এখন মৃতপ্রায়। বহুদলীয় গণতন্ত্রের চেতনা আজ ভূলুণ্ঠিত, মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের চেতনাও আজ বিপর্যস্ত। ভোটারবিহীন বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকারের ক্ষমতায় থাকায় লিন্সা দেশ জাতিকে এক গভীর সংকটের মধ্যে নিপতিত করেছে। এই রাজনৈতিক সংকটে জনগণের ক্ষমতায়নকে এগিয়ে নেয়ার লক্ষে দেশে জনগণের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই। আর সে লক্ষে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে এখন ঐক্যবদ্ধ হওয়া জরুরি।

শহীদ ডাঃ মিলন দিবস উপলক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া দেওয়া বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন। বাণীতে স্বাক্ষর করেন বিএনপির মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন।

খালেদা জিয়া বলেন, “স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন চলাকালে ১৯৯০ সালের ২৭ নভেম্বর তৎকালীন স্বৈরচারী এরশাদ সরকারের লেলিয়ে দেওয়া পেটোয়া বাহিনীর গুলিতে শহীদ হয়েছিলেন ডা: শামসুল আলম খান মিলন। তাঁর শাহাদৎ বার্ষিকীতে আমি তাঁর রূহের মাগফিরাত কামনা করি। জাতীয় গণতান্ত্রিক আন্দোলনে শহীদ ডাঃ শামসুল আলম খান মিলন জাতীয় গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে একটি অবিস্মরণীয় নাম।

স্বৈরাচারী শাসনের শৃঙ্খল ভেঙ্গে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে ডাঃ শামসুল আলম খান মিলন এর এই সর্বোচ্চ ত্যাগ ইতিহাসের স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। সকল কর্তৃত্ববাদী, স্বৈরাচারী গণতন্ত্র বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামে তিনি আমাদের প্রেরণার উৎস।

ডা: মিলন এর আত্মত্যাগকে সার্থক করতে আসুন আমরা সবাই আবারো ঐক্যবদ্ধ হই।