গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে জাতীয় ঐক্য দরকার: ফখরুল

0

ওকএম সবুজঃদেশে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার জন্য একটি জাতীয় ঐক্য দরকার বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ বুধবার সকালে জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, এই দিনে বাংলাদেশের শত্রুরা চট্টগ্রামে জিয়াউর রহমানকে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। তিনি শুধু একজন রাষ্ট্রপতি ছিলেন না তিনি রাষ্ট্র নায়ক ছিলেন। ১৯৭১ সালে যখন রাজনীতিবিদরা দিক নির্দেশনা দিতে পারেনি তখন কালুরঘাট কেন্দ্র থেকে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে জাতিকে যুদ্ধ করতে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন। শুধু তাই নয়, তার নেতৃত্বে পরবর্তীতে বাংলাদেশ তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে অগ্রগতির দিকে এগিয়ে গিয়েছিল।
তিনি সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন। আজকে দুর্ভাগ্য আমাদের। শহীদ জিয়াকে হত্যার পর দীর্ঘ ৯ বছর স্বৈরাশাসন ছিল। সেই শাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামের পতাকা উঁচু করে গোটা জাতিকে যে নেত্রী জাগিয়ে তুলেছিলেন আজকের অবৈধ, অনির্বাচিত ও অগণতন্ত্রিক সরকার সেই নেত্রী কারাগারে রেখেছে। সমগ্র দেশ আজ কারাগারে পরিণত হয়েছে। দেশের লক্ষ লক্ষ মানুষের নামে মিথ্যা মামলা জুড়ে দেয়া হয়েছে। দেশনেত্রী ও তারেক রহমান থেকে শুরু করে আমাদের এমন একটি নেতা বা কর্মী নেই যার নামে মামলা দেয়া হয়নি।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করারা জন্য এবং গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করতে হবে। একই সঙ্গে আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে দেশনেত্রীকে মুক্ত করতে হবে। এর জন্য একটি জাতীয় ঐক্য অবশ্যই দরকার। এই দেশে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হলে যে নির্বাচন দরকার তা অবশ্যই নিরপেক্ষ সরকারের অধীন, স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে হতে হবে। নির্বাচনের আগে পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দিতে হবে, সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।
এর আগে জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড.আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ।