ক্রান্তিকালে জাতি হারালো দেশপ্রেমিক সাহসী সন্তানকে: বেগম জিয়া

0

 বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহ’র মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ।মঙ্গলবার দলটির যুগ্ম মহাসচিব খাইরুল কবির খোকনের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি । মঙ্গলবার ভোরে সিঙ্গাপুরের র‌্যাফেলস্ হার্ট সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান হান্নান শাহ । সিঙ্গাপুরে থাকা হান্নান শাহ’র ছোট ছেলে শাহ রেজানুর হান্নানের বরাত দিয়ে বিএনপির প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

হান্নান শাহ’র মৃত্যুতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দেওয়া শোক বার্তা

‘আমি গভীরভাবে শোকার্ত ও বেদনাহত চিত্তে আ স ম হান্নান শাহকে চিরবিদায় জানাচ্ছি। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান এবং আমার দীর্ঘদিনের বিশ্বস্ত সহকর্মী ও সহযোদ্ধা (অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ও সাবেক মন্ত্রী) আ স ম হান্নান শাহ’র ইন্তেকালের দু:সংবাদ আমার কাছে অকল্পনীয় ও বিনামেঘে বজ্রপাতের মতো।

আমি যখন কায়মনোবাক্যে প্রার্থনা করছিলাম তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে ফিরে আসবেন, তখন তার মৃত্যু সংবাদ এলো। এটা যে কতবড় দু:সংবাদ তা ভাষায় প্রকাশ করার নয়। এ বেদনা ও শোকের পরিমাপ নেই।

দেশজাতির প্রতিটি প্রয়োজনের মূহুর্তে তিনি অসম সাহস ও দেশপ্রেমে দীপ্ত হয়ে রুখে দাঁড়িয়েছেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে। আজীবন তিনি যোদ্ধা সেনানায়কের ভূমিকাই পালন করে গেছেন।

জাতীয় জীবনে বর্তমান ক্রান্তির সময়ে তাকে যখন খুব দরকার, সে সময় তিনি চিরতরে চলে গেলেন। এই অকাল মৃতুতে আমরা এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলই কেবল ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি, দেশ হারালো জাতীয় স্বার্থরক্ষার এক দেশপ্রেমিক অধিনায়ককে, জাতি হারালো তার এক সাহসী সন্তানকে। এ ক্ষতি সহজে পূরণ হবার নয়।

স্বৈরাচার বিরোধী ৯০’র গণঅভ্যূত্থানের একজন অগ্রবর্তী সংগঠক হিসেবে, মন্ত্রীসভার সদস্য হিসেবে, ফখরুদ্দিন-মঈনুদ্দিন এর অবৈধ সরকার বিরোধী সংগ্রাম সূচনাকারী একজন বলিষ্ঠ কন্ঠ হিসেবে, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য হিসেবে মরহুম হান্নান শাহ আমাদের অনেক স্মৃতির সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। তার ভূমিকা ও অবদান ইতিহাসে চিরঅম্লান হয়ে থাকবে।

আমি মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি। আল্লাহ তাকে জান্নাত নসীব করুন।

আমি দু:খ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে তার শোকাহত স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আল্লাহ তাদের এই দুর্বহ শোক সইবার শক্তি ও বইবার সামর্থ্য দিন।

দেশবাসী, ২০ দল ও বিএনপি পরিবারের সকলের প্রতি আমার একান্ত অনুরোধ তারা যেন মরহুমের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন এবং তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাতের জন্য দোয়া করেন। আমরা যদি এই জাতিরাষ্ট্রের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব অক্ষুন্ন রেখে, নাগরিকদের অধিকার সমুন্নত রেখে, তাদের ভোটাধিকারের ভিত্তিতে একটি গণতান্ত্রিক বিধিব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে পারি তাহলেই হান্নান শাহ’র আত্মা শান্তি পাবে এবং তার প্রতি উপযুক্ত সম্মান প্রদর্শন করা হবে।

সেই লক্ষ্যে আমি হান্নান শাহ’র ইন্তেকালজনিত শোককে শক্তিতে পরিণত করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।’