কাদের মোল্লার কবরে ‘শহীদ’ লেখা থাকলে ব্যবস্থা

0

ঢাকা : একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃতুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল কাদের মোল্লার কবরের নামফলকে ‘শহীদ’ শব্দটি লেখা রয়েছে বলে বিভিন্ন পত্রিকায়র খবর প্রকাশ পেয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেছেন, এমনটি হয়ে থাকলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য বেগম ফজিলাতুন নেসা বাপ্পীর প্রশ্নের জবাবে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক সংসদকে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী জানান, যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃতুদণ্ডপ্রাপ্ত কুখ্যাত আসামি কাদের মোল্লার মৃতুদণ্ড কার্যকর হওয়ার পর তার কবরের নামফলকে ‘শহীদ’ শব্দটি লেখার বিষয়টি সম্পর্কে মন্ত্রণালয় অবগত নয়।

মন্ত্রী প্রশ্নকারী সংসদ সদস্যের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, ‘মাননীয় সংসদ সদস্য আপনার সুনির্দিষ্ট লিখিত অভিযোগ পেলে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এ ব্যাপারে আপনার সহযোগিতা কামনা করছি।’

গত ১১ ডিসেম্বর ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকর করা হয়। এরপর ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার ভাষানচর ইউনিয়নের আমিরাবাদে গ্রামের বাড়িতে তার মরদেহ দাফন করা হয়। ওই সংসদ সদস্য বিভিন্ন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে অভিযোগ করেন, কাদের মোল্লার কবরের নামফলকে ‘শহীদ’ শব্দটি লেখা হয়েছে। যা প্রকারান্তে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সঙ্গে প্রহসন।