ওসি মিজানের মত ১০/১২ টা কুলাঙ্গার নাস্তিক পুলিশের লাশ ফেলে দিলে খুব ক্ষতি হবে কি বাংলাদেশ !!

0

ওসি মিজান , ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি)ওয়ারি বিভাগের গেন্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মিজানুর রহমান মিজান সম্প্রতি শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হয়েছেন । গুম খুনে ও বিরোধী নেতা কর্মীদের হত্যা করার ক্ষেত্রে কোন অংশেই তিনি পিছিয়ে নন । আর এসকল অপকর্মের জন্যেই তিনি শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হয়েছেন অবৈধ সরকারের পদতল চেটে ।

আজ গেণ্ডারিয়ায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানের উপর অবৈধ অস্ত্র নিয়ে মসজিদের ভিতর হামলা চালান এই কুলাঙ্গার ও নাস্তিক মিজান । মুসল্লিদের কে মসজিদ থেকে ধাক্কা দিয়ে বের করে অস্ত্রের বাটল দিয়ে মাথায় আঘাত করে মসজিদ থেকে বের করে দেন । বের করার সময় তিনি বারবার বলছিলেন –
” এই মসজিদে নামাজ পড়তে পারবিনা, পড়লেই গুলি করে মেরে ফেলবো ” ।

কোন মুসলমান অন্য মুসলমানকে নামাজ পড়ার কারনে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিতে পারেনা । হিন্দুদের অভিযোগের ভিত্তিতে তিনি আজ মুসলমানের উপর যেভাবে নগ্ন হামলা চালিয়েছেন তা দেখে উনাকে নাস্তিক ও বেজন্মা ভাবতে দ্বিতীয়বার চিন্তা করার প্রয়োজন মনে করিনা ।

ইসলাম শান্তির ধর্ম, বাংলাদেশ মুসলিম দেশ, এই দেশে মুসলমানদের উপর এমন নগ্ন হামলা কখনই মেনে নেওয়া যায়না । এই দেশে মুসলমানদেরকে নিয়ে ভারত গভীর ভাবে ষড়যন্ত্র করে চলেছে । হাজারো ষড়যন্ত্রের পর ও আমাদের শান্তিপ্রিয়তাকে তারা দুর্বল ভেবে একের পর এক আক্রমন করে যাচ্ছে । সংখ্যালঘুদের প্রতি আমাদের চুপ করে থাকাকে তারা আমাদের দুর্বলতা ভাবছে ।

এ দেশের মুসলমান যে যেই দলের অনুসারীই হোক না কেন ধর্মের দিক থেকে সবাই মুসলমান । আমার আশা ও বিশ্বাস ধর্মের উপর আঘাত এলে সাধারন জনগনের মধ্যে যারা সরকার দলের সাপোর্ট করেন তারাও চুপ করে বসে থাকতে পারবেন না । হতে পারে আমি বিএনপি কিংবা আপনি আওয়ামীলীগ কিন্তু সবাই এক আল্লাহর বান্দা ও আসল পরিচয় মুসলিম । দল মত নির্বিশেষে আমরা সবাই মুসলমান । তাই মুসলমানের উপর নগ্ন হামলা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায়না ।

জনাব ওসি মিজান –
আজকের এই নগ্ন হামলার জবাব আপনাকে দিতেই হবে । মুসল্লিদের প্রতি অস্ত্র তাক করে আপনি নিজেকে ইসরাইলের মত উথাপন করেছেন । আপনি মুসলমান নাম ধারন করে অন্তরে বিজ পুষেছেন বিধর্মীদের । আজকের এই হামলার কারনে আপনাকে বাংলাদেশের কোন মুসলমান ক্ষমা করবেনা ।
ভুলে যাবেন না –
” এই দেশের মুসলমানেরা হয়ত ঠিকমতো নামাজ পড়েনা রোজা রাখেনা , আল্লাহর ইবাদত বান্দেগি কম করে, কিন্তু ইসলামের উপর কোন আঘাত ও আল্লাহ ও তার রাসুলের অবমাননা তাদের কলিজায় সয়না । ইসলামের উপর আঘাতে তাদের কলিজায় কাঁপন উঠে যায়, শরীরের রক্ত গরম হয়ে লাভার মত টগবগ করতে থাকে ” ।

আজ আপনি সেই ধর্মপ্রাণ মুসলমানের কলিজায় আঘাত করেছেন, আপনার ও আপনার সহচারী কোন নাস্তিক কুলাঙ্গার মুসলমানের এই বাংলাদেশে রেহাই পাবেন না ।

মনে রাখবেন, আপনার মত কয়েকটা ওসিকে রাস্তায় পুতে ফেলতে ধর্মপ্রাণ মুসলমানের কয়েক সেকেন্ড ও লাগবেনা ।

লেখকঃ মেজর ডালিম

বিশিষ্ট জাতীয়তাবাদী অনলাইন এক্টিভিস্ট