এবার টুইটার, স্কাইপ, ইমো বন্ধ

0

ঢাকা : নতুন করে তিনটি অনলাইন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। রোববার রাতে মাইক্রো-ব্লগিং সাইট টুইটার, যোগাযোগ অ্যাপ স্কাইপ এবং ইমো বন্ধ করার নির্দেশনা দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ৷

একটি আন্তর্জাতিক ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) অপারেটরের সূত্র বিষয়টি  নিশ্চিত করেছে।

২২ দিন বন্ধের পর ফেসবুক খুলে দেয়ার তিন দিনের মাথায় এ নতুন নির্দেশনা এলো। আর ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ, ট্যাঙ্গোসহ কয়েকটি যোগাযোগ অ্যাপস গত ১৮ নভেম্বর থেকে এখনো বন্ধ রয়েছে।

রোববার রাত ৯টার দিকে থেকে দেশের সব ইন্টারনেট সেবা প্রতিষ্ঠান, মোবাইল অপারেটর ও টেলিকম সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে পাঠানো এক চিঠিতে শিগগিরই এসব অনলাইন সেবা বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়।

নিরাপত্তার স্বার্থে গত ১৮ নভেম্বর দুটি আলাদা নির্দেশনায় সাময়িকভাবে ফেসসবুক, ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপসহ সামাজিক যোগাযোগের কয়েকটি মাধ্যম বন্ধ করে দেয় সরকার। প্রথম নির্দেশনায় ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার, ভাইবার ও হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধের নির্দেশনা দেয় বিটিআরসি। একই দিন অপর এক নির্দেশনায় লাইন, ট্যাঙ্গো এবং হ্যাংআউটসহ আরও কয়েকটি মাধ্যম বন্ধ করতে বলা হয়।

২২ দিনপর গত বৃহস্পতিবার ফেসবুক খুলে দেয়া হয়েছে। কোথাও ভাইবার, হোয়াটস অ্যাপও ব্যবহার করা যাচ্ছে বলে ব্যবহারকারীরা জানাচ্ছেন।

এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে ‘নিরাপত্তার’ কারণ দেখিয়ে ভাইবার, ট্যাঙ্গো, হোয়াটসঅ্যাপ, মাইপিপল ও লাইন নামের পাঁচটি যোগাযোগ মাধ্যমের অ্যাপসের সেবা বন্ধ করেছিল সরকার।