এবার জুমার খুতবাও বন্ধ চান বাংলাদেশের মোদীপন্থিরা

0

জিসাফো ডেস্কঃ জুমার নামাজের খুতবা ও ওয়াজ মাহফিলের ওপর নজরদারির সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা-সম্পর্কিত মন্ত্রিসভা কমিটি। রোববার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আইনশৃঙ্খলা-সম্পর্কিত মন্ত্রিসভা কমিটির বিশেষ বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে সভার সভাপতি ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু সাংবাদিকদের জানান, জঙ্গি কর্মকাণ্ড রোধে খুতবা ও ওয়াজ মাহফিলের ওপর নজরদারির সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এদিকে জুমার খুতবা বন্ধের দাবী তুলেছেন মোদীপন্থি উগ্র হিন্দুবাদী বাংলাদেশী সাংবাদিক সুপ্রীতি ধর । তিনি ফেসবুকে লিখেছেন,

…..এক পিস জাকির নায়েক বা পিস টিভি বন্ধ করলে হবে না, সেইসাথে ওয়াজ, খুতবা এসবও প্রয়োজনে বন্ধ করতে হবে, নয়তো নিয়ন্ত্রণ করতে হবে….সবচেয়ে বড় কথা, সেই ছোটবেলা থেকে যাদের মনন ও চিন্তায় সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ঢুকে আছে, সেগুলো ধীরে ধীরে দূর করতে হবে। সেজন্য প্রয়োজন একটা ব্যাপক আকারের সাংস্কৃতিক বিপ্লব……..

তাকে সাপোর্ট করে সুজিত কান্তি লিখেছেন,

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য আমাকে হতাশ করেছে…….লাখ লাখ মুরিদ থাকার পর দে. হো. সাঈদীকে জেলখানায় ঢোকানো গেলে পিস টিভি বন্ধ করা যাবে না কেন…………..?

সুপ্রীতি ও কান্তির এই ধরনের মানুষিকতার প্রতিবাদ করেছেন অনেকেই।

আশরাফুল হায়দার সুমন লিখেছেন,

আপনার স্ট্যাটাসটাই তো সাম্প্রদায়িক বিষবাস্প ছড়াচ্ছে….। খুৎবার সাথে জুমআ নামাজের একটা সম্পর্ক আছে সেটা কি জানেন?

ওহাব রিয়াজ লিখেছেন,

ওইখানেই থামলেন ক্যান ? এইগুলা বন্ধ কইরা আর কি কি মাস্টার প্ল্যান আপনার ওইপাড়ের বাপেদের আছে তাও প্রকাশ করতেন ।

আব্দুস সাত্তার লিখেছেন,

দিদি আপনি গুলিয়ে ফেলছেন ! জঙ্গী আর ওয়াজ, খুতবা কে এক পাল্লায় মাপবেন না । যে জঙ্গী সে তো জঙ্গীই । ওয়াজ , খুতবা মুসলিম কালচারেরই অংশ ! যেদেশে ৯০% লোক মুসলিম সেখানে আর যাই হোক ওয়াজ , খুতবা চলবেই কারন তা মুসলমানদের নামাজেরই অংশ । তবে সেখান থেকে যেন সাম্প্রদায়িকতার বিষবাস্প না ছড়ায় তা দেখভাল করার দায়িত্ব কিন্তু সরকারের ! আপনি যেভাবে বলেছেন তা একদিকে সাম্প্রদায়িকতাকে উস্কে দেবে কারন আপনার লেখায় কিছুটা এ্যান্টি মুসলিম গন্ধ আছে বলে আমি মনে করছি ! আসুন আমরা নিজেরাই না হয় আগে অসাম্প্রদায়িক হই , পরে অন্যদের বলি ।