একজন নিবেদিত প্রাণ ও আমাদের জুল আফরোজ

0

তার সাথে আমার পরিচয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে । বিএনপি’র প্রতি তার ভালোবাসা আমাকে মুগ্ধ করেছে । নিরন্তরভাবে সে শহীদ জিয়াউর রহমান , দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমানকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন শাখায় বিশ্বদরবারে অনেক উঁচুতে তুলে ধরছেন, নিরলশ । এমন বিএনপি অন্তঃপ্রাণ নিবেদিতপ্রাণ সমর্থক আমি জীবনে কম-ই দেখেছি , যখন শুনেছি বিএনপিকে ভালোবাসার জন্য তার ও তার পরিবারের উপর ফ্যাসিবাদের চরম অত্যাচারের পরও বিএনপি’র প্রতি তার ভালোবাসা ও টান অপশক্তিরা দমাতে পারে নি , তখন শ্রদ্ধা অনুভব করছি । কোমল হয়েছে মন । এমন অকুতোভয় ও নিঃস্বার্থ বিএনপিপ্রেমিক অযুত-নিযুত হিসেবহীন কর্মী-সমর্থক আছে বলেই বিএনপি আজও ফ্যাসিবাদের চরম রোষানলে পড়ে রক্তাক্ত হবার পরও টিকে আছে এবং থাকবে যতদিন এই ছোট্ট দেশটি বেঁচে থাকবে আর থাকবে তার মত পরিসংখ্যাহীন বিএনপিপ্রেমী , শহীদ জিয়ার পরম আদর্শবাদীগণের জন্য । কারন বিএনপির প্রতি আছে তার মত অগণিত মাতৃমঙ্গল জনতার আস্হা ও ভালোবাসা । বিএনপি যে তার হৃদয়ের স্পন্দন ।


হ্যাঁ , আমি মজুমদারের কথাই বলছি , জুল আফরোজ মজুমদার , সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে Zul Afros হিসেবে পরিচিত ।

ফরিদপুরের এই বিএনপিপ্রেমী সন্তান জুল আফরোজ ২০০৯ সালের অক্টোবর মাসে যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমান উচ্চতর শিক্ষা লাভের জন্য । ইউনিভার্সিটি অব ইস্ট লন্ডনে পড়াশোনার পাট চুকিয়ে এখন সে লন্ডনেই কাজ করছে । আছে বিএনপির সাথেই । বিএনপি’র প্রতি তার ভালোবাসা আজও একটুও কমেনি । প্রবাসে ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার জুল আফরোজ বিএনপিকে ছায়ার মত অনুসরণ করছেন । দেশে থাকতে তার ও তার পরিবারের উপর ফ্যাসিবাদের অত্যাচার- নির্যাতনের পরও যে বিএনপি তার পাশে দাঁড়ায় নি , তার-ত বিএনপিকে ভুলে যাবার-ই কথা ছিল , কিন্তু যার হৃদয়ে শহীদ জিয়ার নাম সে কী বিএনপিকে ভুলে থাকতে পারে ?  তাই জুল আফরোজ বিএনকে ভুলে নি , বিএনপির সাথেই আছে হৃদয় আর আত্মার বন্ধনে ।


জুল আফরোজকে জানাই নমস্য সালাম । বিএনপির সাইবার ইউজার আন্দোলনের এই সদস্যকে যখন যুক্তরাজ্যে তারেক রহমানের বিভিন্ন কর্মসূচীতে দেখি , তখন মনটা ভরে যায় । জুল আফরোজদের মত এমন নির্লোভ , নিঃস্বার্থ কর্মী-সমর্থক দেশ
বা বিদেশে আছে বলে তারেক রহমানের নেতৃত্বে আমরা একটি সোনার বাংলা গড়ে উঠবে , এই স্বপ্ন দেখি সারাবেলা । জুল আফরাজ তোমার জন্য আমরা ধন্য । তোমরাই-যে তারেক রহমানের সত্যিকারের সাথী , আপনজন ।

জুল আফরোজের মাধ্যমেই আমার পরিচয় (সিলেটের আলাপ) sylheteralap.com নামক একটি অনলাইন নিউজপেপার ও একটি পাক্ষিক পত্রিকার সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি জনাব মোঃ আবদুল আজিজ সাহেবের সাথে । ‘সত্য ও ন্যায়ের কথা বলে’ স্লোগানকে ধারন করে ‘সিলেটের আলাপ’ নিউজপেপারটির মাধ্যমে জনাব আজিজ সাহেব যেভাবে যুক্তরাজ্যের মাটিতে বাংলাদেশকে তুলে ধরছেন তা অবিশ্বাস্য । অকল্পনীয় । প্রবাসীদের দেশের প্রতি যে মায়াময় টান তা লিখে বোঝানো সম্ভব নয় । প্রবাসে থেকে দেশের প্রতি মায়ায় আর্দ্র হয় না মন কিংবা কখনও চোখে দুফোটা অশ্রু ঝরে না ভালোবাসায় , এমন কাউকে কী খুঁজে পাওয়া যাবে ? দেশের দুঃখে কাঁদে না কিংবা দেশের সুখে হাসে না এমন মানুষ অ-ত বিরল প্রবাসে ।

11998623_10201068789838097_1586009865_n

আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়ার লস এন্জেলেসের ডাউন-টাউনের বাসায় যখন একা থাকি আমার মানসলোকে-ত কেবল বাংলাদেশের ছবিই ভেসে বেড়ায় । কী অপূর্ব , স্নিগ্ধ , সুন্দর , কোমল , নমস্য , পরম লাবন্যেভরা দেশ আমার- বাংলাদেশ ! যেন পরম কবিতার অনন্যসব পংক্তিমালায় আবৃত ! প্রবাসীদের পুত্র-সন্তান যাদের জন্ম বিদেশে-ই তারাও-ত দেখি পিতৃপুরুষের দেশের টানে ছুটে আসে , ভালবাসায় ছুঁয়ে দেখে তার ভেতরে যার রক্ত সেই মানুষটির মাতৃভূমি !
মাতৃভূমি যে হৃদয়েই বেড়ে ওঠা পরমভূমি, জন্মের আকুলতায় স্নাত ।

মোঃ আবদুল আজিজ সাহেব ও জুল আফরোজের প্রতি আমার ভালোবাসার শেষ নেই । প্রবাসে থেকেও যারা বিএনপি এবং বাংলাদেশকে বুকে ধারন করে স্বপ্ন দেখে আজন্ম লালিত সত্যের , তাদের প্রতি ভালোবাসা শেষ হয় কেমন করে ?

‘ব’ তে বাংলাদেশ আবার ‘ব’ তে বিএনপি ; কী অপূর্ব সেঁতুবন্ধন , মিলের ! এই মিল আর সেঁতুবন্ধনের মাঝেই এগিয়ে চলুক বিএনপি ও বাংলাদেশ , এই তবে প্রার্থনা যেখানে জুল আফরোজ ও মোঃ আবদুল আজিজ সাহেবরা সেঁতুর বুকের ভেতর কাছের মানুষ , প্রাণের মানুষ , খাঁটি মানুষ , হৃদয়ের মানুষ আর দেশের গর্বে গর্বিত দেশপ্রেমিক বাংলাদেশী । 

লেখক : সোহেল আফজাল

বি: দ্র:  লেখকের একান্ত কিছু কথা লেখার মাধ্যেমে প্রকাশ করলেন।