উন্নয়ন নয়, লুটপাটের মহাসড়কে সরকার: মঈন খান

0

জিসাফো ডেস্কঃ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে নেয়ার দাবি করেছেন। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন। উন্নয়ন নয়, লুটপাটের মহাসড়কে নেয়া হয়েছে।’

বুধবার সকালে গুলশানের বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মূল বক্তব্য তুলে ধরেন।

মঙ্গলবার সরকারের দুই বছরের পূর্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণের প্রতিক্রিয়া জানাতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

মঈন খান বলেন, ‘বিএনপি শেষ অর্থ বছরে দেশে প্রবৃদ্ধি ৬.৭ শতাংশে রেখে গিয়েছিল। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার গত সাত বছরে দেশের প্রবৃদ্ধি ৬.৭ শতাংশে নিতে পারেনি।’

তিনি বলেন, ‘২০০৬ সালের পর থেকে আজ পর্যন্ত সরকার ১০-২০-৩০ কোটির টাকার মেঘা প্রজেক্ট দিয়ে রাজধানীর প্রসাধনির লেপন দেয়ার প্রয়াসে গ্রামীণ অর্থনৈতিক কাঠামোকে লুটপাট করে দিয়েছে।’

বিএনপি এই নেতা বলেন, ‘শুধু বিদেশি বিনিয়োগ নয়, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার অভাবে কোনো দেশীয় বিনিয়োগকারী গত কয়েক বছরে একটি টাকাও বিনিয়োগ করেনি। ফলে সেই টাকা বিদেশে পাচার করা হয়েছে, সুইজ ব্যাংকে রাখা হয়েছে।’

দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে পুরো দেশ এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতু নিজ অর্থায়নে করার নামে দরিদ্র মানুষের পকেট কাটা হচ্ছে। ১০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প ব্যয় তিন গুণ বেড়ে ২৮ হাজার কোটি টাকা হয়েছে। সর্বশেষ সেটা ৪০ হাজার কোটি টাকায় গিয়ে পৌঁছলে কারোর বলার কিছু থাকবে না।’

এছাড়া সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ শাহজাহান, সহ-প্রচার সম্পাদক সৈয়দ ইমরান সালেহ প্রিন্স, সহ-দফতর শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করিম শাহিন, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা এবিএম মোশাররফ হোসেন, মো. আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট প্রমুখ।