আ.লীগ যে গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না বিদেশেও তা প্রমাণ করল: আমীর খসরু

0

বুধবার লন্ডনের ব্রিক লেনে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘দলটি দেশে গণতন্ত্র বিশ্বাস করেন না, বিদেশেও প্রমাণ করল গণতন্ত্রে তারা বিশ্বাস করে না, আলোচনায় বিশ্বাস করে না, সমঝোতায় বিশ্বাস করে না, যুক্তিতে বিশ্বাস করে না।’ মঙ্গলবার বিকেলে যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ হাউস অব লর্ডসে আয়োজিত বাংলাদেশ বিষয়ক সেমিনারে আওয়ামী লীগের অংশ না নেয়ার প্রেক্ষিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, সেমিনারে অংশ না নিয়ে আওয়ামী লীগ আয়োজকদের অপমানিত করেছে, এর মাধ্যমে গণতন্ত্রের প্রতি আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধাহীনতাই ফুটে উঠেছে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউজ অফ লর্ডসে লর্ড কার্লাইলের আয়োজনে বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, মানবধিকার এবং সংখ্যালঘুদের অধিকার বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে বিএনপির সঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর প্রতিনিধিনের উপস্থিতির কারণে আওয়ামী লীগ তা বর্জন করে। সেমিনারে বিএনপির পক্ষ থেকে অংশ নেন কেন্দ্রীয় নেতা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, রুমিন ফারহান এবং যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা এম এ মালিক। তারা বাংলাদেশে বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে মানবাধিকার এবং গণতান্ত্রিক অধিকার হরণের অভিযোগ করে বলেন, বিরোধীদের দমনে সরকার গুম-খুনকে হাতিয়ার হিসেবে নিয়েছে। সেই সঙ্গে নির্বাচন ব্যবস্থাকে প্রায় ধ্বংস করে দিয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে খসরু বলেন, ‘উনারা কেন আসলেন না সেটার সদুত্তর উনারাই দিতে পারবেন। যে কারণগুলো দেখিয়েছেন, অবশ্যই এ কারণগুলোর কোনো যৌক্তিকতা এখানে নেই।’ এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির এই শীর্ষ নেতা জানান, বর্তমানে যুক্তরাজ্য সফরে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে তারেকের সব বিষয়ে কথা হবে। সবকিছু নিয়ে তারা আলোচনা করবেন। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলের নেতা প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, জামায়াত কোনো অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকলে আওয়ামী লীগের তাতে যোগ না দেয়ার রীতি রয়েছে। দেশে-বিদেশে সব জায়গাতেই একই নীতিতে চলে আওয়ামী লীগ।