আ.লীগ ক্ষমতায় আসলেই মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা বাড়ে: মেজর (অবঃ) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রম

0

ঢাকা: আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলেই মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা বাড়ে উল্লেখ করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ যত বাড় ক্ষমতায় এসেছে ততবাড় মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যা বাড়েছে। আওয়ামী লীগের এই ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের বিচার হওয়া উচিত।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।প্রধান নির্বাচন কমিশন রকিবুদ্দিনের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের অধীনে সার্স কমিটি গঠন হলে তাদের (আ.লীগের) রাষ্ট্রপতি যে কমিশন গঠন করবে তা রকিবুদ্দিনের নির্বাচন কমিশনের মতোই হবে।অতীতে যারা সংসদে ছিলো তাদের সুপারিশ নিয়েই সার্স কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছেন মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

‘বর্তমান সরকারের কাছে রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান ও অস্তিত্ব নিরাপদ নয়’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল।

মেজর হাফিজ বলেন, নির্বাচনের নাম শুনলেই আওয়ামী লীগ ভয় পায়। এজন্য তারা জোর করে ক্ষমতা দখল করে আছে। দয়া দাক্ষিন্নের মাধ্যমে দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে না। দেশে যদি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হয় তাহলে রাজপথে নামতে হবে। রাজপথের আন্দোলনের মাধ্যমেই আমরা গণতন্ত্র ফিরে পাব। আর তাই দেশের স্বার্থে, জনগণের স্বার্থে গণতন্ত্র ফেরাতে আমরা রাজপথে নামতে চাই।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতা পদক কেড়ে নেওয়া স্বাধীনতা সংগ্রামকে উপহাস করা বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফার সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, গণ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট মুজিবুর সারোয়ার, জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা শিরিন সুলতানা ও জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।