আ’লীগের চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু ও চাষীদের জমি দখলের অভিযোগ

0

জিসাফো ডেস্কঃ যশোরের মণিরামপুরে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়সহ প্রান্তিক চাষীদের ২শ’ বিঘা জমি দখল করে ঘের তৈরির অভিযোগে ঝাঁপা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা শামছুল হক মন্টুকে ধরিয়ে দিতে ২৫ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। শনিবার দুপুরে মণিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা ইউনিয়নের মোবারকপুর মৌজার ওই জমিতে তৈরি ঘের পরিদর্শন শেষে পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান অভিযুক্ত চেয়ারম্যানকে ধরিয়ে দিতে এ পুরস্কার ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবীর ওই জমি মালিকদের বুঝিয়ে দেয়ার নির্দেশ দেন।

এলাকাবাসী জানায়, গত ২২ মার্চ প্রথম ধাপের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে মণিরামপুরের ঝাঁপা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শামছুল হক মন্টু। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর মন্টু ও তার ছোট ভাই সাইফুলসহ ২৫-৩০ জনের একটি প্রভাবশালী চক্র মোবারকপুর মৌজায় জোর করে ২শ’ বিঘা ফসলি জমিতে ঘের কাটে। ওই জমির মালিকরা বাধা দিতে গেলে তাদেরকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়া হয়। পরে ইউপি চেয়ারম্যান মন্টুসহ ৭-৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন অরুণ হাজরা নামের ওই জমির এক মালিক। জমি দখল করে ঘের তৈরির এ খবর গণমাধ্যমে ওঠে এলে শনিবার দুপুরে ঘটনাস্থলে যান যশোরের জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবীর ও পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাহেরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জেলা প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অভিযুক্ত ওই চেয়ারম্যানকে ধরতে ২৫ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন।