আরও ৩ মামলায় জামিন পেলেন শওকত মাহমুদ

0

জিসাফো ডেস্কঃ নাশকতার আরও তিন মামলায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাংবাদিক শওকত মাহমুদকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে দায়ের করা আলাদা আবেদনের শুনানি করে বিচারপতি এম.ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আমির হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। পল্টন ও মুগদা থানায় পুলিশ বাদি হয়ে এ মামলাগুলো দায়ের করেছিল। এ নিয়ে মোট ৮ মামলায় শওকতের জামিন হলো।

সাংবাদিক, শারিরীক অসুস্থতা ও এসব মামলায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগ না থাকা এবং মামলাগুলোর প্রাথমিক তথ্য বিবরণীতে নাম না থাকার বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে আদালত তাকে জামিন দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন শওকতের আইনজীবী।

তিনি বলেন, ‘আমরা আদালতে বলেছি, শওকত মাহমুদ জাতীয় প্রেসক্লাবের দু’বারের নির্বাচতি সভাপতি ছিলেন। তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ্য, তার বিরুদ্ধে দায়ের করা এ মামলাগুলোতে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য প্রমাণ নেই। আদালত আমাদের আবেদনের কথা বিবেচনায় নিয়ে শওকত মাহমুদকে জামিন দিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আদালত এই সাংবাদিক নেতাকে ছয় মাসের অন্তঃবর্তিকালীন জামিন মঞ্জুর করেছেন। একইসঙ্গে কেন তাকে স্থায়ী জামিন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে ৪ সপ্তাহের রুল জারি করেছেন।’

আদালতে আসামীপক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন। তাকে সহযোগিতা করেন অ্যাডভোকেট মাসুদ রানা।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, চলতি বছরের ১, ৩ ও ১০ জানুয়ারি রাজধানীর রমনা, খিলগাঁও ও রামপুরা থানায় গাড়ি পোড়ানো, পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে মারা ও এসব নাশকতার কাজে হুকুমের অভিযোগ এনে তিনিটি মামলা শওকতের বিরুদ্ধে দায়ের করে পুলিশ।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর নাশকতার মামলায় শওকত মাহমুদকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে দফায় দফায় তাকে রিমান্ডে নেয়া হয়। তাকে এ পর্যন্ত মোট ২০টি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে ৫ টি মামলায় তিনি জামিনে আছেন। বর্তমানে কাশিমপুর কারাগারে বন্দি রয়েছেন শওকত মাহমুদ।