আরও ৩০ সচিবের পদ সৃষ্টি হচ্ছে

0

ঢাকা: ৩০টি সচিব পদ সৃষ্টি করতে যাচ্ছে সরকার। এটা হবে দেশের জনপ্রশাসনের ইতিহাসে উল্লেখযোগ্য ঘটনা। এজন্য সরকার উপ-সচিব, যুগ্ম সচিব, অতিরিক্ত সচিব ও সচিব পদে পদোন্নতি বিধিমালা, ২০০২ সংশোধন করতে যাচ্ছে।

সংশোধনীতে পদোন্নতি বিধিমালার যেসব বিধি/উপবিধিতে সচিব পদের উল্লেখ রয়েছে ওই সব বিধি বা উপবিধিতে সচিব পদের সঙ্গে গ্রেড-১ পদ যুক্ত করার প্রস্তাব করা হয়েছে। আগামী ২২শে নভেম্বর বেলা ১২টায় প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটি’র বৈঠকে পদোন্নতি সংক্রান্ত বিধিমালা সংশোধনের প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য উঠবে। অনুমোদন মিললে অতিরিক্ত সচিব পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মধ্য থেকে গ্রেড-১ পদে পদোন্নতি পাবেন।

এছাড়া প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটিতে পাঠানো সারসংক্ষেপে বলা হয়েছে, কোন কর্মকর্তাকে অতিরিক্ত সচিব পদ থেকে সচিব পদে বা গ্রেড-১ পদে এবং গ্রেড-১ পদ থেকে সচিব পদে পদোন্নতি দেয়ার বিষয়টি সরকার কর্তৃক নির্ধারিত হবে। তবে সরকার কোন কর্মকর্তাকে স্ব- বেতনে সচিব পদে থেকে গ্রেড-১ এর কোন পদে বা গ্রেড-১ এর পদ থেকে সচিব পদে নিয়োগ দিতে পারবে। এ ছাড়া অতিরিক্ত সচিব থেকে গ্রেড-১ পদে এবং অতিরিক্ত সচিব থেকে সচিব পদে পদোন্নতির প্রয়োজনীয় যোগ্যতা একই রকম হবে। পদোন্নতি সংক্রান্ত বিধিমালায় এভাবেই সংশোধনী আনার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৪ সালের ১৭ই ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বা বিভাগের আওতাধীন দপ্তর/সংস্থা/বিধিবদ্ধ সংস্থা/কর্পোরেশনের ৩০টি শীর্ষ পদকে গ্রেড-১ এ উন্নীত করা হয়। কিন্তু এসব পদ সচিব না হওয়ায় পদোন্নতির বিধান ছিল না। এ কারণে বিভিন্ন ক্যাডার বা সার্ভিসের জন্য সুনির্দিষ্টভাবে নির্ধারিত পদ ছাড়া গ্রেড-১ স্কেলভুক্ত এসব পদে অতিরিক্ত সচিব পদমর্যাদার (গ্রেড-২ স্কেলভুক্ত) কর্মকর্তাদের পদোন্নতির মাধ্যমে নিয়োগের জন্য বিদ্যমান সরকারের উপ- সচিব, যুগ্ম সচিব, অতিরিক্ত সচিব ও সচিব পদে পদোন্নতি বিধিমালা, ২০০২’ সংশোধনের চিন্তা করা হয়। সংশোধনীর খসড়া প্রণয়নের আগে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন অনুবিভাগ প্রধানের মতামত নিয়ে বিভিন্ন প্রায়োগিক দিক বিশ্লেষণ করা হয়। এরপরই গ্রেড-১ পদে পদোন্নতি দেয়ার বিষয়ে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি ফাইলে জনপ্রশাসন মন্ত্রীর কাছে পাঠানো হলে তিনি তাতে অনুমোদন দেন। এরপরই তা সার সংক্ষেপ আকারে প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটিতে পাঠানো হয়েছে।