আনুগত্যের পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তিরাই সার্চ কমিটিতে : নজরুল ইসলাম খান

0

আনুগত্যের পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের সার্চ কমিটিতে রাখা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নয়াপল্টনের ভাসানী মিলনায়তনে স্বেচ্ছাসেবক দল আয়োজিত দোয়া মাহফিলে নজরুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এই দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, বিএনপি চেয়েছিল এমন ব্যক্তিদের নিয়ে সার্চ কমিটি করা হোক, যাদের আর কিছু পাওয়ার নেই। কিন্তু সার্চ কমিটি করা হয়েছে এমন ব্যক্তিদের নিয়ে, যাদের পাওয়ার আছে বা ইতোমধ্যে পেয়েছেন। আনুগত্যের পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তিরাই কমিটিতে আছেন। এই সার্চ কমিটির কাছে নিরপেক্ষ, শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন আশা করা প্রায় অসম্ভব।

ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, এমন একজনকে সার্চ কমিটির সদস্য করা হয়েছে, যিনি ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি মতো একটা বিতর্কিত নির্বাচনের সময়ে নির্বাচন কমিশনের সচিব ছিলেন। এর পুরস্কার হিসেবে পরে তাকে পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান করা হয়। যিনি রকীবউদ্দিনের নেতৃত্বে কমিশনের মতো একটি অযোগ্য কমিশন প্রস্তাব করেছিলেন, তাকে আবার কমিটির প্রধান করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ পরিবারের সদস্যও এই কমিটির সদস্য হয়েছেন।

বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, যেসব ব্যক্তিকে দিয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে, তাদের সবাই না হলেও প্রায় সবাই কোনো না কোনোভাবে সরকারি দলের সঙ্গে যুক্ত। তাদের কাছ থেকে নিরপেক্ষ, শক্তিশালী এবং সরকারের অনুগত হবে না- এমন নির্বাচন কমিশন আশা করা কঠিন হয়ে গেছে। প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

দোয়া মাহফিলে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভুইয়া জুয়েল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।