আওয়ামী উন্নয়নের সুফল পাচ্ছে জনগন, নারায়ণগঞ্জের স্বামীকে বেঁধে গৃহবধূকে গণধর্ষণ ।

0

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে স্বামীর হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে স্বামীর সামনেই এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় মামলা করেছে। সোমবার দুপুরে সালাউদ্দিন নামে এক ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত ১১ মে ভোরে তারাব পৌরসভার দিঘী বরাব বৌবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গ্রেফতার সালাউদ্দিন গণধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। সালাউদ্দিন দিঘী বরাব বৌবাজার এলাকার দ্বীন ইসলামের ছেলে।

রূপগঞ্জ থানা পুলিশের ইন্সপেক্টর শহিদুল আলম জানান, ওই গৃহবধূর স্বামীর বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার কছাকাটা থানার বেগুনিপাড়া এলাকায়। তারা স্বামী-স্ত্রী স্থানীয় একটি কারখানায় কাজ করেন এবং উপজেলার তারাব পৌরসভার বরাব বাজার এলাকায় বসবাস করে আসছেন। গত ৬ মে গৃহবধূসহ তার স্বামী গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে যান।

বেড়ানো শেষে গ্রামের বাড়ি থেকে ১০ মে রওনা দিলে ১১ মে ভোরে রূপগঞ্জের বরাব বাসস্টেশনে নামেন। পরে দিঘী বরাব বৌবাজার এলাকায় যাওয়ার জন্য রিকশা না পেয়ে হেঁটেই রওনা হন। দিঘী বরাব বৌবাজার এলাকায় পৌঁছলে মোগরাকুল এলাকার মৃত কুদ্দুস আলীর ছেলে আবুল হাসেম ও দিঘী বরাব বৌবাজার এলাকার দ্বীন ইসলামের ছেলে সালাউদ্দিন তাদের গতিরোধ করে।

একপর্যায়ে স্বামীকে হাত-পা বেঁধে ফেলে। পরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ওই গৃহবধূকে সালাউদ্দিন ও আবুল হাসেম গণধর্ষণ করে। পাশাপাশি হত্যার ভয় দেখিয়ে গৃহবধূর নাক ফুল ও দুটি মোবাইল ফোন লুটে নেয়।

এ সময় তাদের চিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। পরে ওই গৃহবধূকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়।

ইন্সপেক্টর আরও বলেন, গ্রেফতার সালাউদ্দিন গণধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। বাকি আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে উৎস- জাগো নিউজ