অবৈধ সরকারের অধীনে এই দেশে কেউ নিরাপদ নয়- এন ডি পি

0

জিসাফো নিউজ ডেস্কঃ বাংলাদেশে দেশী-বিদেশী কেউ নিরাপদ নয় বলে মন্তব্য করেছেন ২০ দলীয় জোটের শরিক ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা। গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতির শিকার হচ্ছে দেশী-বিদেশী সাধারণ মানুষ। গণতন্ত্রের একটি কালো অধ্যায় চলছে। এখানে দেশী-বিদেশী কোন নাগরিক নিরাপদ নয়। ভোটারবিহীন সরকারের শাসনামলে হত্যার রাজনীতির মহাযজ্ঞ চলছে। গুলশান-২-এ কূটনৈতিকপাড়ায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে ২৮শে সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ইতালির নাগরিক সিসেরোকে দুর্বৃত্তরা নৃশংসভাবে হত্যা করে পালিয়ে গেছে। ঘটনার ২৪ ঘণ্টা পার হয়ে গেলেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। তিনি বলেন, পবিত্র ঈদুল আজহার দিন ভোলার চরফ্যাশনে প্রকাশ্যে শাসক দলের কর্মীরা ছাত্রদলের নেতা আবদুর রাজ্জাককে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। এখনও হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করা হয়নি। এভাবে সারা দেশে গুম, খুন আর  হত্যার রাজনীতি চলছে। প্রতিটি সেক্টরে চরম অনিয়ম ও নৈরাজ্য চলছে। কোথাও শান্তি নেই। বিবৃতিতে বলা হয়, পিএসসি থেকে শুরু করে প্রতিটি পাবলিক পরীক্ষা ও ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস করা এখন স্বাভাবিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। মেধাবীরা সারা বছর পড়েও যে রেজাল্ট করতে পারছে না, কালো টাকা দিয়ে ফাঁস করা প্রশ্নপত্র দিয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা অসদুপায়ে নিজেদের ভাগ্য নিজেরাই টাকার বিনিময়ে তৈরি করছে। যার ফলে শিক্ষাঙ্গনে শিক্ষার পরিবর্তে অনিয়ম আর অশিক্ষা প্রাধান্য পাচ্ছে।
ফলে দেশের আগামী প্রজন্মের কাছ থেকে দেশ নানাভাবে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে।
বিবৃতিতে বলা হয়, দেশে আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি হচ্ছে অথচ সরকার ও তার মন্ত্রী পরিষদের সদস্য এখনও বলছে সবকিছু ঠিকঠাক আছে। জঙ্গিবাদের দোহাই দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দল যখন বাংলাদেশে তাদের সফর বাতিল করেছে তখন প্রধানমন্ত্রীসহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলছেন দেশে জঙ্গিবাদের কোন অস্তিত্ব নেই। অথচ যখন সরকারের মন্ত্রিসভায় থাকা তথ্যমন্ত্রী ইনুসহ কিছু বিতর্কিত মন্ত্রী জঙ্গিবাদ জঙ্গিবাদ করতে করতে মুখ থেকে ফেনা বের করেছেন, তখন সরকার প্রতিবাদ করেনি।