অবহেলীত হরিরামপুর ইউনিয়নের পাকুরিয়া গ্রামবাসী

0

সৈকত হোসেনঃঢাকা সিটি কর্পোরেশনের আওতায় উত্তরা আর উত্তরা সংলগ্ন রয়েছে হরিরামপুর ইউনিয়ন।দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকার কোন উন্নয়ন লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।হরিরামপুর ইউনিয়নের পাকুরিয়া গ্রামে নানান পেশাজীবি মানুষের বসবাস।পাকুরিয়াতে রয়েছে যাত্রাবাড়ি,তালটেক,খানটেক নামে কয়েকটি ছোট ছোট গ্রাম ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের পাশে হলেও এ এলাকাতে নেই ভাল কোন রাস্তা-ঘাট,ড্রেন।বিগত বিএনপি সরকারের আমলে হরিরামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন জাতিয়তাবাদী দলের এম কুদরত-এ- এলাহী লিটন তার সময় ব্যাপক উন্নয়ন হলেও বর্তমান চেয়ারম্যান আবুল হাসিম দীর্ঘ ১০ (দশ) বছর যাবৎ এ এলাকায় কোন উন্নয়ন কাজ করেনি।

13296191_1803477246548893_765529506_n

পাকুরিয়া থেকে উত্তরা সীমান্তের যাত্রাবাড়ি পর্যন্ত রাস্তা পুরোটাই চলাচলের অনুপযোগী।

এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ কয়েকবার ইউনিয়নে দরখাস্ত দিয়ে জানালেও কোন কাজ হয়নি।

‘পাকুরিয়া তারা মসজিদে সালাত আদায় করতে আসা এক মুসল্লি বলেন, এটা বিএনপি নেতা লিটনের এলাকা এমন কথা বলে রাস্তা-ঘাট মেরামতের কাজে হাত দিচ্ছে না হাসিম চেয়ারম্যান’।আমরা কি অপরাধ করেছি?আমরা কি ইউনিয়ন আর বাংলাদেশের নাগরিক না? প্রতিদিন পাকুরিয়ার প্রধান সড়ক দিয়ে চলছে রিক্সা-ভেন,অটো,ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবহন বিভিন্ন স্থানে গর্ত হয়ে থাকার কারনে বৃষ্টির পানিতে ভরাট হয়ে থাকে এতে অনেকেই না দেখে দূর্ঘটনায় পরে আহত হোন।রাস্তার দূর-অবস্থার কারনে ছেলে-মেয়েদের স্কুল কলেজে যেতে অসুবিধা হচ্ছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইউনিয়ন পরিষদে চাকুরি করা এক কর্মকর্তা জানান,আবুল হাসিম বিভিন্ন উন্নয়নের কথা বলে এই দশ বছরে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। কিন্তু ইউনিয়নের প্রায় অনেক এলাকাতেই উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি।
‘কতৃপক্ষের কাছে পাকুরিয়া গ্রামবাসীর, আবেদন জনবহুল এই পাকুরিয়ার রাস্তাটি নির্মান করে এলাকাবাসিকে দূর্ভোগ থেকে মুক্তি দিন।’